কারাওকে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ

1858

আপনার হাতে তুলে নিন মাইক্রোফোন। চালিয়ে দিন আপনার পছন্দের গানের মিউজিক আর শুরু করুন গান গাওয়া। চালু হয়ে গেলো আপনার কারাওকে।

Safe Internet

কারাওকে এমন এক ধরণের বিনোদন যেখানে একজন অপরিপক্ব গায়ক তার পছন্দের গানের মিউজিক ছেড়ে দিয়ে তার সাথে গান গাইতে পারেন মাইক্রোফোনে। সামনের টিভি পর্দায় সাধারণত গানের কথা ভাসতে থাকে আর গায়কের জন্য নাচের বিভিন্ন কৌশল আর আলো জ্বলতে থাকে।

নভেম্বরের ২০-২২ তারিখ সিঙ্গাপুরে হয়ে গেলো কারাওকে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৫। এ বছর রেকর্ড সংখ্যক ৩১টি দেশ অংশ নিয়েছে। নারীদের মধ্যে বিজয়ী হয়েছেন কানাডার এলসাইডা অ্যালার্টা এবং পুরুষদের মধ্যে বিজয়ী হয়েছেন সিঙ্গাপুরের মুহাম্মদ ফাইরুস বিন আদম।

২০০৩ সাল থেকে ফিনল্যান্ডে এই বার্ষিক প্রতিযোগিতা শুরু হয়।

সবচেয়ে বেশি মানুষের অংশগ্রহণে কারাওকে করে রেকর্ড করেন ইংল্যান্ডের সঙ্গীতশিল্পী রবি উইলিয়ামস। ২০০৩ সালে ইংল্যান্ডের নেবওর্থে ১ লাখ ২০ হাজার মানুষের অংশগ্রহণে ‘স্ট্রং’ গানটির কারাওকে করা হয়।

সবচেয়ে লম্বা সময় ধরে কারাওকে করার রেকর্ডটি রয়েছে হাঙ্গেরির দখলে। ১০ হাজার ১১ ঘণ্টা দীর্ঘ এই কারাওকে অনুষ্ঠিত হয় ২০১১ সালের ২০ জুলাই থেকে ৩১ আগস্ট।