পর্যটকদের জন্য বিপদজনক ২০ দেশ

707
statue-of-jesus-rio-de-janeiro

কেউবা নেশায়, কেউবা পেশায় আবার কেউবা ব্যস্ততা থেকে একটু ছুটি নিতে ভ্রমণে বের হন। প্রায় প্রতিটি মানুষই বেড়ানোর লোভ সামলাতে পারে না। তাই তারা চায় যতোটা ইচ্ছা, যেখানে ইচ্ছা ঘুরে বেড়াতে।

তবে, আপনি যদি কয়েকদিনের জন্য বাড়ির বাইরে বেড়াতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই অন্যান্য বিষয়গুলোর পাশাপাশি সেখানকার নিরাপত্তার কথাও মাথায় রাখতে হবে। আপনার সুখকর ভ্রমণ যদি কোনও অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে বসে তাহলেই সব ভেস্তে যাবে। বিভিন্ন পর্যটন স্থানে পর্যটকদের লক্ষ্য করে অনেকেই বসে থাকে, সেটি ব্যবসা করার জন্যই হোক বা ভোগান্তিতে ফেলার জন্য হোক!

পর্যটকদের নিরাপত্তার বিবেচনায় অনেক দেশই যেমন আপনাকে কাছে টানবে তেমনিভাবে উল্টো ঘটনাও ঘটতে পারে। এই বছরের প্রথম দিকে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম ভ্রমণ ও পর্যটন নিয়ে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। বিশ্বের ১৩৬টি দেশের উপর জরিপ করে এটি প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত রিপোর্টে দেশগুলোর নিরাপত্তার র‍্যাংকিংও করা হয়েছে।

চলুন ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী পর্যটকদের জন্য বিপদজনক ২০টি দেশ/স্থানের নাম জেনে নিই। যদিও এখানে নির্দিষ্ট কোনও ক্রম মানা হয়নি।

১। থাইল্যান্ড
২। কঙ্গো
৩। গুয়েতেমালা
৪। দক্ষিণ আফ্রিকা
৫। জামাইকা
৬। চাদ
৭। লেবানন
৮। মালি, বামাকো
৯। ইউক্রেন
১০। ফিলিপাইন
১১। কেনিয়া
১২। হন্ডুরাস
১৩। মিশর
১৪। নাইজেরিয়া
১৫। ভেনেজুয়েলা
১৬। পাকিস্থান
১৭। কলম্বিয়া
১৮। ইয়েমেন
১৯। ব্রাজিল
২০। সোমালিয়া

তথ্যসূত্র: ওজার্নাল ও অনলাইন