বাঁহাতি মানুষের কয়েকটি বিশেষত্ব

Barak Obama

বাঁহাতিদেরকে সবসময় ঝামেলা পোহাতে হয়। এই যেমন খাতায় লেখার সময় হাতে কালি লেখে যায় বা স্পাইরাল করা খাতায় লিখতে অসুবিধা হয়, বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র তাদের জন্য আলাদা করে বানাতে হয়, গাড়ির কাপ-হোল্ডারগুলোও থাকে উল্টোদিকে। তবে বাঁহাতি হবার কিছু ভালো দিকও রয়েছে। আগামী ১৩ আগস্ট আন্তর্জাতিক বাঁহাতি দিবস উপলক্ষ্যে বাঁহাতি হবার এমনই কয়েকটি ভালো দিক উল্লেখ করা হল।

১। বাঁহাতি মানুষেরা বেশিদিন বাঁচে
১৯৯০ সালের দিকে ক্যালিফোর্নিয়ায় করা এক জরীপ থেকে জানা যায় বাঁহাতি লোকেরা ডানহাতি লোকদের চাইতে ৯ বছর বেশি বাঁচে। যদিও জরীপটি শুধু মৃত মানুষদের উপর করা হয়েছিল কিন্তু এটির সত্যতা অনেকটাই পাওয়া গিয়েছে।

২। বাঁহাতি কিছু বিখ্যাত ব্যক্তি
পৃথিবীর অন্যতম শক্তিশালী ব্যক্তি হিসেবে খ্যাত মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা একজন বাঁহাতি। এছাড়াও বিখ্যাত বিজ্ঞানী আইনস্টাইন, মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, অপরা উইনফ্রে এরাও বাঁহাতি।

৩। বাঁহাতি ব্যক্তিরা স্পেশাল
আমরা আমাদের চারপাশে যেসব মানুষ দেখি তাদের অধিকাংশই ডানহাতি। জরীপ বলছে বিশ্বে ৭০ থেকে ৮৫ শতাংশ মানুষ ডানহাতি। সুতরাং বাঁহাতি ব্যক্তিরা একটু স্পেশাল।

৪। বাঁহাতি মানুষের অসুখ হয় কম
২০০৫ সালে ১২ লাখেরও বেশি মানুষের উপর জরীপ চালিয়ে দেখা গিয়েছে বাতের ব্যাথা ও বিভিন্ন রকম প্রদাহ কম হয়। ডানহাতিদের তুলনায় বাঁহাতিদের গ্যাস্ট্রিক, আলসারের সমস্যাও কম দেখা দেয়।

৫। খেলাধুলায় বাঁহাতি মানুষের গুরুত্ব বেশি
যেহেতু বাঁহাতি মানুষের সংখ্যা কম তাই ক্রিকেট, বেসবল, ব্যাডমিন্টনসহ আরও বিভিন্ন খেলায় বাঁহাতি ব্যক্তিরা একটু বাড়তি সুবিধা পেয়ে থাকে। তাই তাদের গুরুত্বটাও একটু বেশি থাকে।