হাঁটি হাঁটি পা পা

stick

স্পাইডারম্যানের মত দালান থেকে দালানে ঘুরে বেড়াতে পারলে কেমন হত? যদি লাগত না কোন রাস্তা, কেবল এক দালানের ছাদ থেকেই চলে যাওয়া যেত অন্য ছাদে? আর কিছু না হোক, যানজটের ঝামেলা থেকে যে বাঁচা যেত এ ব্যাপারে একমত হবে সবাই। তবে তা তো আর সম্ভব নয়, তাই খুশি থাকতে হবে আপাতত গেম খেলেই। অ্যান্ড্রয়েড নিয়ে এসেছে "স্টিক হিরো" (Stick Hero) নামের একটি গেম যেখানে মূল কাজ ছাদ থেকে ছাদে ঘুরে বেড়াবার মতই।

তবে তার জন্য ব্যবহার করতে হবে তক্তা।

এ খেলার নিয়ম খুবই সহজ। উঁচু উঁচু কিছু খুঁটির মত রয়েছে, তক্তা ফেলে ফেলে ফেলে এগুলোর একটি থেকে অন্যটিতে পৌঁছাতে হবে। ব্যস, এ-ই। 

গেমটির শুরুতে দেখা যাবে একটি খুঁটির ওপর নাদুসনুদুস ছোট্ট কালো একটি ছায়া দাঁড়িয়ে রয়েছে। এটিই গেমের "হিরো", যাকে নিয়ে খেলতে হবে। তার সামনে বেশ কিছুটা দূরত্বে দেখা যাবে আরেকটি খুঁটি। হিরোকে সেখানে যেতে হবে।

যাওয়ার জন্য লাগবে তক্তা। ফোনের পর্দায় আঙুল ছোঁয়ালে অর্থাৎ ট্যাপ (tap) করলে তার পায়ের কাছ থেকে একটি তক্তা বাড়তে শুরু করবে। পর্দায় আঙুল ছুঁইয়ে রাখলে সেটি লম্বা হতেই থাকবে। আঙুল ছেড়ে দেওয়ামাত্র লম্বা হওয়া থেমে গিয়ে তা সামনের দিকে পড়ে যাবে।

 

খেলায় এগিয়ে যেতে হলে আন্দাজ করে তক্তাটিতে কেবল ততটাই বাড়তে দিতে হবে যেন সেটি পরবর্তী খুঁটির ঠিক ওপরে গিয়ে পড়ে। তাহলে গেমের হিরো নিরাপদে সেই খুঁটিতে চলে যেতে পারবে।

তক্তা খাটো হয়ে গেলে চলবে না। এমনকি অতিরিক্ত লম্বা হয়ে গেলেও নয়। সেক্ষেত্রে তার শেষ প্রান্তে গিয়ে বেচারা হিরো নিচে পড়ে যাবে !

এভাবেই হিসাবনিকাশ করে খেলে যেতে হবে যতক্ষণ না ছোট্ট গোল হিরোটি নিচে পড়ে যায়।

গেমটি কঠিন মনে হলেও বেশ মজার। খানিকটা শেখার ব্যাপারও রয়েছে এতে। জ্যামিতির ধারণা একটু ভাল থাকলে এ খেলা একটু পরই পানিভাত মনে হয়।একঘেয়ে লাগতে পারে মনে হচ্ছে? তার জন্য নতুন একটি সুবিধা গেমের ভেতর চালু করা হয়েছে। একই গেমের একটু অন্যরকম সংস্করণ বলা যায় একে। এতে কেবল একটু লাঠিয়ালি করতে হবে: হিরোর হাতে থাকবে লাঠি আর তা দিয়ে তরমুজ ফাটাতে হবে!
এক্ষেত্রে খেলার মূলনীতি একই। পর্দায় আঙুল ছুঁয়ে রাখলে মূল চরিত্রটির হাতের লাঠি দৈর্ঘ্যে বাড়তে থাকবে। যখন মনে হবে যে সেটি তরমুজ পর্যন্ত পৌঁছাবে তখন আঙুল সরিয়ে নিলেই হিরো তরবারি চালিয়ে তরমুজ ফাটানো শুরু করবে।
তরমুজ ফাটানোর ক্ষেত্রে ৩বার হাত ফসকানো যাবে। তারপরই "Game Over" – নতুন করে আবার শুরু করতে হবে।

আর পরের খুঁটিতে কিন্তু সেই লাঠি লাগানো চলবে না – এদিকটা খেয়াল রাখতে হবে।

সেই একই হিরো দেখতে দেখতে যেন বিরক্তি ধরে না যায় তার জন্যও ব্যবস্থা আছে। গেমের ভেতর দেওয়া হয়েছে নানা আকারের এবং প্রকারের আরও চরিত্র। খেলতে খেলতে ধীরে ধীরে সেগুলোও পাওয়া যাবে।

মোট কথা, মনোযোগ ধরে রাখার মত কোন কিছুরই এ গেমে অভাব নেই। সোজাসাপ্টা নিয়মকানুন, আকর্ষণীয় পটভূমি – অভাব কেবল খেলোয়াড়ের।

তো বসে পড়া যাক না এখনই? হাঁটি হাঁটি পা পা করে চলুক রেকর্ড ভাঙা ও গড়ার খেলা ?