নিজেই তৈরি করুন আমের আচার

352
Mango-Pickle
আমের আচার। ছবি : সংগৃহীত

আচার কার না পছন্দ? আর কাঁচা আমের আচার হলেতো কথাই নেই। চাইলে নিজে ঘরে বসেই টক-ঝাল-মিষ্টি কাঁচা আমের আচার তৈরি করতে পারেন। নিজে খেয়েও তৃপ্তি পাবেন আর বাসার সকলের মন যোগাতেও পারবেন।

চলুন দেখে নিই কীভাবে টক-ঝাল-মিষ্টি কাঁচা আমের আচার তৈরি করা যায়।

Safe Internet

যা যা লাগবে :
কাঁচা আম – দেড় কেজি,
সিরকা – আধা কাপ,
সরিষার তেল – এক কাপ,
রসুন বাটা – দুই চা-চামচ,
আদা বাটা – দুই চা-চামচ,
হলুদ – দুই চা-চামচ,
চিনি – তিন টেবিল-চামচ (অথবা আপনার স্বাদ অনুযায়ী),
লবণ – পরিমাণ মতো।

মসলা তৈরির জন্য যা যা লাগবে:
মেথি গুঁড়া – এক চা-চামচ,
জিরা গুঁড়া – দুই চা-চামচ,
মৌরি গুঁড়া – এক চা-চামচ,
সরষে বাটা – তিন টেবিল-চামচ,
শুকনো মরিচ গুঁড়া – দুই টেবিল-চামচ,
শুকনো মরিচ – ২ টা
কালো জিরা গুঁড়া – এক চা-চামচ।

বানানোর প্রণালী
খোসাসহ কাঁচা আম টুকরো করে লবণ দিয়ে মেখে একরাত রেখে দিতে হবে অথবা সকালে আম কেটে সন্ধ্যা পর্যন্ত লবন দিয়ে মেখে রেখে দিতে পারেন। পরের দিন ধুয়ে আদা, হলুদ, রসুন মাখিয়ে কিছুক্ষণ রোদে রাখুন। এরপর একটি সসপ্যানে আধা কাপ তেল দিয়ে এতে আমগুলো দিয়ে নাড়া-চাড়া করতে থাকুন। গলে গেলে নামিয়ে ফেলুন।

অন্য একটি সসপ্যানে বাকি তেল দিয়ে চিনিটা গলিয়ে ফেলুন। কম আঁচে চিনি গলে গেলে সব মসলা দিয়ে (মৌরি আর মেথি গুঁড়া ছাড়া বাকি সব মসলা) আম কষিয়ে নিতে হবে। আম কষানো হয়ে গেলে মৌরি গুঁড়া, মেথি গুঁড়া দিয়ে তিন – চার মিনিট নেড়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

নামানোর পর একটি ট্রেতে ছড়িয়ে রোদে এক থেকে দেড় ঘন্টা রাখতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা করে একটি কাঁচের পাত্রে তুলে একটু সরিষা তেল দিয়ে ফ্রিজে রেখে সংরক্ষণ করুন। সাথে দুই তিনটা শুকনা মরিচও ভেজে দিয়ে সংরক্ষণ করতে পারেন আমের মজাদার আচার।

আর হ্যাঁ, আচার ভালো রাখতে মাঝে মাঝে রোদে দিতে পারেন।