T20 বিশ্বকাপের ভেন্যু সমাচার (পর্ব-৩)

T20 World Cup Venue

২০১৬ সালের T20 বিশ্বকাপ এবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ভারতে। মোট ৮টি ভেন্যুতে আয়োজন করা হচ্ছে সবগুলো খেলা। সেসব স্টেডিয়াম নিয়েই আমাদের এই ভেন্যু সমাচার। আজকের পর্বে থাকছে মুম্বাই ও বেঙ্গালুরু।

মুম্বাই

Safe Internet

ধারণক্ষমতাঃ ৩২ হাজার

ভারতের মুম্বাইয়ে অবস্থিত ওয়ানখেরে স্টেডিয়াম ক্রিকেটের অনেক বিরল ঘটনার সাক্ষী হয়ে রয়েছে। ২০১১ সালের আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয় এই স্টেডিয়ামে। সোজা গ্যালারীতে ৬ মেরে ভারতীয় অধিনায়ক ধ্বনির বিশ্বকাপ জয়ের সেদিনের স্মৃতি অনেকদিন মনে রাখবে ওয়ানখেরের দর্শকেরা।

ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার, শচীন তেন্ডুলকার এবং ভিজয় মার্চেন্টের নামে রাখা হয়েছে এই স্টেডিয়ামের স্ট্যান্ডগুলোর নাম। শচীন তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শেষ  ম্যাচটিও খেলেন এই স্টেডিয়ামে।

T20 বিশ্বকাপ ২০১৬ এর ৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ওয়ানখেরে স্টেডিয়ামে। ১৬ মার্চ ওয়েস্টইন্ডিজ বনাম ইংল্যান্ড, ১৮ মার্চ দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ইংল্যান্ড, ২০ মার্চ দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম গ্রুপ-বি সেরা দল এবং ৩১ মার্চ ২য় সেমিফাইনালটি আয়োজিত হবে এখানে।

বেঙ্গালুরু

ধারণক্ষমতাঃ ৪০ হাজার

২০১৫ সালে বিশ্বের প্রথম সৌরশক্তিচালিত ক্রিকেট স্টেডিয়াম হিসেবে ইতিহাস তৈরি করে বেঙ্গালোরের চিন্নাস্বোয়ামি স্টেডিয়াম। তবে স্টেডিয়ামটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৬৯ সালে। এই স্টেডিয়ামেই দুই ক্রিকেট কিংবদন্তী ওয়েস্টইন্ডিজের স্যার ভিভ রিচার্ডস ও গর্ডন গ্রিনিজের ডেব্যু হয়েছিল। সুনীল গাভাস্কার তার শেষ ইনিংস খেলেছিলেন এখানে।

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অনুষ্ঠিত আইসিসি নারী T20 বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ আয়োজিত হবে এই স্টেডিয়ামে ১৫ মার্চ। নারীদের আরও বেশ কয়েকটি ম্যাচ এবং ৪টি ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ হতে যাচ্ছে এখানে।

পুরুষদের মধ্যে শ্রীলংকা বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ (২০ মার্চ), অস্ট্রেলিয়া বনাম গ্রুপ-এ সেরা দল (২১ মার্চ) এবং ভারত বনাম গ্রুপ-এ সেরা দল (২৩ মার্চ)- এই ৩টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে চিন্নাস্বোয়ামি স্টেডিয়ামে।