এ কোন রোনালদো?

উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরে অবস্থিত পর্তুগীজ ‘মাদেইরা’ দ্বীপটি আয়তনে বেশ বড়সড়ই। ৮০১ বর্গকিলোমিটারের এ দ্বীপটি মূলত ২টি কারণে বিখ্যাত। প্রথমটি ওয়াইন দ্বিতীয়টি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। হ্যাঁ, পর্তুগালের জনপ্রিয় ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এ দ্বীপেই জন্মগ্রহণ করেছেন।

রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাবের তারকা ফুটবলার রোনালদোর কারণেই বিখ্যাত হয়ে উঠেছে এই মাদেইরা দ্বীপ। তাই সেখানকার জনগণ ভালোবেসে তাকে সম্মান জানানোর জন্য রোববার তার একটি মূর্তি উন্মোচন করেছে। এ কাজটিতে শ্রদ্ধা বা ভালবাসার কোন কমতি ছিলো না। কিন্তু সমস্যা হয়ে গিয়েছে একটি জায়গাতেই। মূর্তিটা দেখতে কোনভাবেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর মত নয়।

প্রথমতঃ রোনালদোর চেহারাটা একমাত্র বা অনন্য অর্থাৎ কারো সাথে মিল নেই। কিন্তু মূর্তির চেহারাটা তৈরি করা হয়েছে গড়পড়তা পর্তুগীজদের চেহারার আদলে।

দ্বিতীয়তঃ মূর্তির চুলের যে স্টাইল সেটা বহুদিন ধরেই ব্যবহার করেন না রোনালদো।

তৃতীয়তঃ মূর্তির রোনালদো দেখতে বেশ পেশীবহুল। কিন্তু বাস্তবে রোনালদো অনেকটাই অন্যরকম।

চতুর্থতঃ এটি সব বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে কেননা মূর্তিটি একটি টি-শার্ট পরে আছে। আর এই টিশার্টের কারণে ঢাকা পড়ে গেছে তার প্রকৃত দেহসৌষ্ঠব।

সবশেষেঃ মূর্তিটা তৈরি করা হয়েছে রোনালদোর ফ্রি-কিক নেয়ার স্টাইলে।