বিশ্বরেকর্ড করলো সোলার ইমপালস ২

সোলার ইমপালস ২ পৃথিবীর প্রথম সৌরশক্তিচালিত, জ্বালানীবিহীন উড়োজাহাজ যেটি সম্প্রতি পৃথিবী প্রদক্ষিণ করে এসেছে। ৪২ হাজার কিলোমিটার পথ ভ্রমণ শেষ করে পাইলট বার্ট্রান্ড পিকার্ড এটিকে আবুধাবিতে নিয়ে এসেছে।

বিশ্বভ্রমণ শেষ করে মঙ্গলবার আবুধাবির আল-বাতিন বিমানবন্দরে ফিরে আসে সোলার ইমপালস ২। এখান থেকেই গত বছর রেকর্ড সৃষ্টিকারী এই ভ্রমণ শুরু হয়েছিল। এশিয়া, উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ ও উত্তর আফ্রিকা হয়ে আবার আগের জায়গায় ফিরে আসে এটি। প্রতি ঘণ্টায় গড়ে ৮০ কিলোমিটার গতিতে উড়েছে এই জাহাজ।

ClassTune

তবে সোলার ইমপালস ২ টানা এই পথ পাড়ি দেয়নি। বিভিন্ন স্থানে বিরতি দিয়েছে। এই যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০১৫ সালের ৯ মার্চ। শেষ যাত্রাটি রোববার শুরু হয় কায়রো থেকে। জাতিসংঘ মহাসচিব সরাসরি সম্প্রচারের মাধ্যমে এসময় কথা বলেছেন পিকার্ডের সাথে।

তবে পিকার্ড একা এই বিমান পরিচলনা করেননি। বিভিন্ন সময় তার বদলে বিমান উড়িয়েছেন আরেক বৈমানিক আন্দ্রে বর্শবার্গ। এটি একটি এক সিটের বিমান হওয়ায় তারা দুইজন অদল-বদল করে বিমানটি চালিয়েছেন। এর আগে বর্শবার্গ সবচেয়ে বেশি সময় ধরে বিরতিহীনভাবে বিমান চালানোর বিশ্বরেকর্ড করেন। নাগোয়া, জাপান ও হাওয়াইয়ের উপর দিয়ে টানা ১১৮ ঘণ্টা সোলার ইমপালস ২ চালিয়ে ৮৯২৪ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেন তিনি।

একটি গাড়ির সমান ওজনের সোলার ইমপালস ২ বিমানে বোয়িং ৭৪৭ বিমানের সমান পাখা যুক্ত করা হয়েছে। বিমানের ব্যাটারিচালিত ৪টি ইঞ্জিন নির্ভর করে এই পাখায় বসানো ১৭ হাজার সৌরকোষের উপর।

ভ্রমণের পুরো সময়টাই বিমানের সাথে নির্বিঘ্ন যোগাযোগ রেখেছে মোনাকোতে অবস্থিত মিশন কন্ট্রোল। ইঞ্জিনিয়ার ও বিশেষজ্ঞরা আবহাওয়া ও পথ সম্পর্কে পাইলটকে সঠিক দিক নির্দেশনা দিয়েছে।

মূলত নবায়নযোগ্য শক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি ও এ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানোর জন্যই এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বার্ট্রান্ড পিকার্ড।