এই আগস্টে মুক্তিপ্রাপ্তরা

২০১৫ এর এই আগস্ট মাসকে সিনেমার মাস বললে ভুল হবেনা। আগস্ট মাসে মুক্তি পেয়ে যাওয়া এবং মুক্তি পেতে যাচ্ছে এমন ছবির তালিকা অনেক দীর্ঘ। ইতিমধ্যেই মুক্তি পেয়ে গিয়েছে এমন কিছু চলচ্চিত্র নিয়েই আমাদের আজকের আয়োজন।

ClassTune

ফ্যান্টাস্টিক ফোর:
আবারো হলিউডের পর্দা কাপাতে মার্ভেলের  সুপার হিরো টিম ‘ফ্যান্টাস্টিক ফোর’ নিয়ে হাজির হয়েছেন জনপ্রিয় নির্মাতা জশ ট্র্যাঙ্ক। অ্যাকশনধর্মী এই চলচ্চিত্রের বিভিন্ন চরিত্রের মাঝে মি. ফ্যান্টাস্টিক চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাইলস টেলার, ইনভিসিবল ওমেন হিসেবে কেট মারা, হিউমেন টর্চের চরিত্রে মাইকেল বি জর্ডান, ড. ডুম হিসেবে টবি কেবেল এবং আরো অনেকে।

পারমাণবিক রশ্মির বিকিরণে হঠাৎ করে বিশেষ ক্ষমতা অর্জন করা চার মহাকাশচারীর অকল্যাণকর শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করাকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে মুভির কাহিনী। গত ৭ আগস্ট মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর মাঝে ফ্যান্টাস্টিক ফোর সবচেয়ে আলোচিত হলেও মুক্তির এই কদিনে আশানুরূপ সাফল্য দেখাতে পারেনি চলচ্চিত্রটি।

১২২ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মিত সিনেমাটির সপ্তাহশেষে মাত্র ৩০ মিলিয়ন আয় করতেও হিমশিম খেতে হয়েছে। আইএমডিবিতেও রেটিং পয়েন্ট মাত্র ৪। এখন সময়ই বলে দিবে, এই ব্যর্থতার রেশ কাটিয়ে কতদূর এগিয়ে যেতে পারে অ্যাডভেঞ্চারে ভরপুর এই চলচ্চিত্রটি।

 

রিকি অ্যান্ড দ্যা ফ্ল্যাশ:
গত ৭ আগস্ট মুক্তি পেয়েছে অস্কার জয়ী জোনাথান ডেমির পরিচালনায় ও অ্যাকাডেমী অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত ডায়াবলো কোডির কাহিনী অবলম্বনে নির্মিত কমেডি-ড্রামামুভি ‘রিকি অ্যান্ড দ্যা ফ্ল্যাশ’।

মেরিল স্ট্রিপ, ম্যামি গামার, সেবাস্টিয়ান স্ট্যান, কেভিন ক্লাইনের মত একঝাঁক তারকার উপস্থিতিতে গান আর লাইভ পারফরমেন্সে ভরপুর এই চলচ্চিত্র আইএমডিবিতে রেটিং পয়েন্ট পেয়েছে ৬.৩।

এ ছবিতেই স্ট্রিপকে তৃতীয়বারের মত তার নিজের মেয়ে গামারের সঙ্গে দেখা গেছে বড় পর্দায়। সহ-অভিনেতা ক্লাইনের সাথেও তৃতীয়বারের মত বড় পর্দায় হাজির হচ্ছেন মেরিল স্ট্রিপ।

সিনেমায় রিকিকে (মেরিল স্ট্রিপ) তার পরিবারসহ সবকিছু ছেড়ে তার জীবনের রকস্টার হওয়ার স্বপ্নের পিছনে ছুটতে দেখা যায় । আর মায়ের এই দূরে সরে যাওয়া, মা-বাবার বিচ্ছেদ সবকিছুর জন্য মেয়ে জুলির(গামার) জীবনেও ভর করে হতাশা আর বিষণ্ণতা। এসব নিয়েই বিভিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে এগিয়ে যায় কাহিনী।

ইতিমধ্যেই ৬.৬ মিলিয়ন ডলার আয় করে নিয়েছে চলচ্চিত্রটি। এখন দেখা যাক এই চলচ্চিত্রের মূল আকর্ষণ মেরিল স্ট্রিপ কতদূর পর্যন্ত এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে তার রিকি অ্যান্ড দ্যা ফ্ল্যাশকে।

শন দ্যা শিপ মুভি:
একইদিনে মুক্তি পাওয়া আরেকটি চলচ্চিত্র হল জনপ্রিয় টিভি সিরিজ অবলম্বনে নির্মিত ‘শন দ্যা শিপ’ মুভি। আর্ডম্যান অ্যানিমেশন্সের প্রযোজনায় এবং রিচার্ড স্টারযাক ও মার্ক বার্টনের কাহিনী ও পরিচালনায় ৮৫ মিনিটের এই মুভিতে দেখা গেছে শন নামের চিরাচরিত সেই দুষ্ট ভেড়াকে।

যে কিনা তার বিভিন্ন উদ্ভট কাজকর্ম দ্বারা তার মনিব কৃষক এবং নিজের বন্ধু-বান্ধব অর্থাৎ পুরো ভেড়ার পালকে নিয়েই বিপদে পড়ে। আবার নিজের বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিয়ে নানা কারসাজি করে সেখান থেকে বেরও হয়ে আসবে।

ছবিটিতে বিভিন্ন চরিত্রে কন্ঠ দিয়েছেন জাস্টিন ফ্লেচার, জন স্পারক্স, কেইট হারবার, এমা টেইটসহ প্রমুখ। আর সংগীত পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন ইয়ান এশকেরি।

সানড্যান্স কিড প্রোগ্রামের অংশ হিসেবে গত ২৪ জানুয়ারি সিনেমাটির প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছিল সানড্যান্স ফিল্ম ফেস্টিভালে। আইএমডিবিতে ৭.৪ রেটিং পাওয়া চলচ্চিত্রটি ইতিমধ্যেই আয় করে নিয়েছে ৬৫.৯ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি। আর এর কাঙ্খিত সাফল্য দেখে শন দ্যা শিপ মুভির সিক্যুয়েল নির্মাণের পরিকল্পনা করাটাই স্বাভাবিক।

আরডম্যান অ্যানিমেশন্স ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে তারা মুভিটির সিকু্যয়েল নির্মাণের ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা শুরু করে দিয়েছে।