The Siphon

siphon

বিজ্ঞান নিয়ে অনেকের মনেই ভয়ভীতি থাকে। জটিল সব সূত্র, গাণিতিক ব্যাখ্যা আর কাঠখোট্টা সব শব্দ শুনলেই কেমন যেন ভয় ভয় লাগে। জটিল সব ঘটনাকে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা দিয়ে সহজভাবে তুলে ধরার কাজটিই করছে সায়েন্স রকস টিভি অনুষ্ঠানটি। প্রতি সপ্তাহে ২টি করে ৫২ সপ্তাহে মোট ১০৪টি মজার মজার সায়েন্স এক্সপেরিমেন্ট দেখানো হবে তোমাদের আর বলে দেয়া হবে সেটা কেন হলো, কিভাবে হলো। আজ এক ঝলক জেনে নেয়া যাক সায়েন্স রকস টিভি অনুষ্ঠানের ত্রয়োদশ পর্বে দেখানো ‘The Siphon’ এক্সপেরিমেন্টটি।

ClassTune

 

যা যা লাগবেঃ

  • দুটি স্বচ্ছ গ্লাস
  • রঙ মিশ্রিত পানি
  • স্বচ্ছ পাইপ
  • উঁচু একটি বক্স

কিভাবে করবোঃ

প্রথমে একটি গ্লাস উঁচু বাক্সটির উপর আর অপর গ্লাসটি নীচে রাখি। উপরের গ্লাসটি রঙিন পানি দিয়ে পূর্ণ করি। এখানে রঙিন পানি ব্যবহার করা হয়েছে শুধুমাত্র এক্সপেরিমেন্ট ভালোভাবে বুঝার জন্য, অন্য কোন কারণে নয়। এবার পাইপের এক মাথা পানিতে ডুবাই। অন্য মাথাটি মুখে নিয়ে ফুঁ দিয়ে ভেতরের বাতাস বের করে দেই। এসময় গ্লাসের পানিতে বুদবুদ দেখা যাবে। এবার মুখ দিতে সাবধানে আস্তে করে পাইপ দিয়ে বাতাস টান দেই। পানি পাইপ বেয়ে বেশ খানিকটা উপরে উঠে আসলে সেটা খালি গ্লাসের মধ্যে ছেড়ে দেই। দেখা যাবে এবার নিজে নিজে উপরের গ্লাস থেকে রঙিন পানি নীচের গ্লাসে চলে যাচ্ছে। এটা চলতে থাকবে যতক্ষন না পর্যন্ত দুই গ্লাসের পানির এক সমতায় চলে না আসে। দুটি গ্লাসের পানি সমান হয়ে গেলেই পানি প্রবাহ বন্ধ হয়ে যাবে।

 

কেন হলঃ

এই ঘটনাটির জন্য বাতাসের চাপ এবং অভিকর্ষ উভয়ই দায়ী। বাতাসের চাপের কারণেই পানি উপরের গ্লাস থেকে নীচে গিয়েছে। যেহেতু ফুঁ দিয়া বাতাস আগেই বের করে দেয়া হয়েছে তাই পানি শুধু একদিকেই প্রবাহিত হয়েছে। কিন্তু যদি পাইপের উপরের দিকে একটি ফুটো করে দেয়া হতো তাহলে সেখান দিয়ে বাতাস ঢুকে চাপ সৃষ্টি করতো এবং পানির প্রবাহ দুই দিকে চলে যেতো।