পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু

1519
asteroid 2013TX68
ছবি: সংগৃহীত

ছোট আকারের একটি গ্রহাণু তীব্র গতিতে ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। তবে বিজ্ঞানীরা বলছেন এটি পৃথিবীর খুব কাছ দিয়ে গেলেও কোন সংঘর্ষ সৃষ্টি করবে না।

২০১৩টিএক্স ৬৮ নামের এই গ্রহাণুটি মার্চের ৫ তারিখ পৃথিবীর কাছ দিয়ে অতিক্রম করবে। এটা পৃথিবীর প্রায় ৯০ লাখ মাইল দূর দিয়ে অতিক্রম করবে যা পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্বের ৩৫ গুন এবং আমাদের চিন্তার কোন কারণ নেই।

এই গ্রহাণু সর্বোচ্চ ১১ হাজার মাইল দূরত্ব দিয়ে অতিক্রম করতে পারে যেটা আমাদের উপগ্রহগুলোর দূরত্বের কাছাকাছি। যদিও আমাদের উপগ্রহগুলো এতে ক্ষতিগ্রস্ত হবার তেমন কোন সম্ভাবনা নেই।

কিন্তু দূরত্বের এতো বিশাল পার্থক্য কেন হতে পারে সে ব্যাপারে নির্দিষ্ট কোন তথ্য নেই। ২০১৩ সালে প্রথম এবং শেষবারের মত দেখা গিয়েছিল এই গ্রহাণু। সেসময় মাত্র ৩ দিনের জন্য এই গ্রহাণুটি থেকে তথ্য সংগ্রহ করার সুযোগ পেয়েছিল বিজ্ঞানীরা। এরপরই সূর্যের অতিরিক্ত আলোয় হারিয়ে যায় গ্রহাণুটি। এর ফলে গ্রহাণুটির কক্ষপথ ভালোভাবে নির্ণয় করা সম্ভব হয়নি।

প্যাট্রিক টেইলর নামে পুয়ের্তো রিকোর অ্যারেসিবো অবসারভেটরির একজন গ্রহাণু বিজ্ঞানী বলেন, ২০১৩টিএক্স৬৮ গ্রহাণু সূর্যের দিক থেকে পৃথিবীর দিকে ধাবিত হচ্ছে যার ফলে এর অবস্থান ও কক্ষপথ নির্ণয় করা সম্ভব হচ্ছে না যতক্ষণ না পর্যন্ত এটি পৃথিবীকে অতিক্রম করে অন্য পাশে না যাচ্ছে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই গ্রহাণুর আকার ৩০ মিটার চওড়া হতে পারে। ৩ বছর আগে রাশিয়ার চ্যালয়াবিন্সকে এর অর্ধেক আকারের একটি গ্রহাণু ভূপাতিত হয়েছিল যার ফলে সৃষ্ট শকওয়েভের কারণে আশপাশের অঞ্চলের ঘরবাড়ির জানালার কাঁচ ভেঙে যায় এবং প্রায় ১ হাজার মানুষ আহত হয়।