ফিলিস্তিন ও ভ্যাটিকানের পতাকা জাতিসংঘে

874

প্রথমবারের মত দুই পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের পতাকা উত্তোলন করা হল জাতিসংঘে। নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে অন্যান্য সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পতাকার পাশে এখন থেকে শোভা পাবে ভ্যাটিকান সিটি এবং ফিলিস্তিনের পতাকা।

ভ্যাটিকান সিটি ১৯৬৪ সালে এবং ফিলিস্তিন ২০১২ সালে জাতিসংঘের পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রের মর্যাদা পায়।

ClassTune

ভ্যাটিকান সিটি পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম স্বাধীন রাষ্ট্র। একে ছিদ্র রাষ্ট্রও বলা হয়। কেননা এর অবস্থান ইটালির রাজধানী রোমের মাঝখানে। ক্যাথলিক চার্চের প্রধান পোপ এখানে বাস করেন। বর্তমান পোপের নাম পোপ ফ্রান্সিস। এছাড়া পৃথিবীর বিখ্যাত চার্চগুলোর মধ্যে অন্যতম সেন্ট পিটার ব্যালিস্টিকা ভ্যাটিকান সিটিতে অবস্থিত।

ফিলিস্তিনের দুটি স্থান বিশ্বে খুবই পরিচিত, পশ্চিম তীর ও গাজা। এ দুটি অঞ্চল ইসরাইল দখল করে রেখেছে। তবে স্বাধীন দেশের অংশ হিসেবে ফিলিস্তিন জায়গা দুটি ফিরে পেতে চায়।

অন্যদিকে জাতিসংঘ একটি বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠান যারা বিশ্বে শান্তি এবং নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। পৃথিবী থেকে ক্ষুধা, দারিদ্র আর রোগ-ব্যাধি দূর করা এবং সুশিক্ষা ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করাই এর মূল লক্ষ্য। ১৯৪৫ সালে ৫১ সদস্যরাষ্ট্র নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে জাতিসংঘের সদস্যরাষ্ট্র সংখ্যা ১৯৩। জাতিসংঘের বর্তমান মহাসচিব দক্ষিণ কোরিয়ার বান কি মুন।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনগুলোতে সবচাইতে বেশি শান্তিরক্ষী কাজ করছেন বাংলাদেশ থেকে। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে বাংলাদেশই একমাত্র রাষ্ট্র, যার সদস্যরা সামরিক ক্ষেত্রের তিনটি দিকেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে।