বলের গতিবেগ বের হবে এক নিমিষেই

radar-gun-2

ক্রিকেট খেলা দেখার সময় হঠাৎ টিভি পর্দায় স্কোরকার্ডের কোণায় ভেসে উঠে একটি লেখা Speed of Ball 110 km/h।এই তথ্য দ্বারা কি বুঝানো হয়েছে তা হয়তোবা তোমরা বুঝতে পারছো। অর্থাৎ, একজন বোলার কত বেগে বল করেছে।

খেলা দেখার সময় দর্শকদের মনের ভিতরে একটা কৌতূহল থাকে বোলারটি কত বেগে বল করেছে তা কিভাবে তৎক্ষণাৎ নির্ণয় করা হয়। চলো আজ জেনে নেই কিভাবে একজন বোলারের বলের গতিবেগ নির্ণয় করা হয় ক্রিকেট খেলায়।

ClassTune

মূলত রাডার গানের সাহায্যে বলের গতিবেগ বের করা হয়। এই যন্ত্রটি দেখতে বন্দুকের মত বলে এর নামের শেষে গান শব্দটি যুক্ত করা হয়েছে। রাডার গানের আরেক নাম স্পিড গান। রাডার গান বা স্পিড গান মাঠের দুইপাশের সাইট স্ক্রিনের ডান বা বাম পাশে কোন এক দণ্ডের উপরে বসানো হয়ে থাকে।  

ডপলারের নীতি অনুযায়ী রাডার গান কাজ সম্পাদন করে থাকে। শব্দের উৎস ও শ্রোতার মধ্যে আপেক্ষিক গতির ফলে শব্দের কম্পাঙ্কের যে পরিবর্তন হয় তাকে ডপলার প্রভাব বা ক্রিয়া বলে। অবশ্যই প্রশ্ন আসছে বলের গতিবেগের সাথে শব্দের সম্পর্ক কোথায় ?

রাডার গান মূলত একটি রিসিভার ও একটি ট্রান্সমিটার নিয়ে গঠিত। যখন একজন বোলার বল করে তখন রাডার গান বলের গতিপথে রেডিও তরঙ্গ প্রেরণ করে। বোলার যখন বলটি শেষ করে ফেলে তখন  স্বাভাবিকভাবে রেডিও তরঙ্গটি বলের গতিপথে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে প্রতিধ্বনি আকারে আবার রাডার গানে ফিরে আসে। তৎক্ষণাৎ রাডার গানটি  তরঙ্গের প্রতিধ্বনি Capture করে।অবশেষে ডপলারের নীতি অনুযায়ী বলের গতিবেগ নির্ণয় করে। রেডিও তরঙ্গের তরঙ্গদৈর্ঘ্য বেশী বলে সহজে বাতাস ভেদ করতে পারে।

তবে আবহাওয়ার পরিস্থিতি ভেদে বলের গতিবেগ কিঞ্চিত পরিবর্তিত হয়ে থাকে।           

এছাড়া, রাডার গান বা স্পিড গানের সাহায্যে নির্ভুলভাবে একটি বলের গতিবেগ নির্ণয় করা যায়। তাই যখনই একজন বোলার বলটি ডেলিভারি করে তৎক্ষণাৎ রাডার গান জানিয়ে দেয় বলের গতিবেগ !

ক্রিকেট ছাড়াও লন টেনিসে সার্ভের গতিবেগ নির্ণয় করতে রাডার গান ব্যবহার করা হয়। আজকাল বেসবল খেলায়ও রাডার গান ব্যবহার করা হয় । এছাড়া, ট্রাফিক পুলিশ চলমান কোন গাড়ির গতিবেগ বের করতে এই রাডার গান ব্যবহার করে থাকে।

রাডার গান নামে একটি অ্যাপ গুগল প্লে স্টোরে রয়েছে। তবে এই অ্যাপটি মূলত তৈরি করা হয়েছে বেসবল বা সফট বল খেলায় বলের গতিবেগ নির্ণয় করতে।  

২০০৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শোয়েব আখতারের করা ১৬১.৩ Km/h বেগে বলটি এখন পর্যন্ত সবচেয়ে দ্রুতগতির বল। চলো নিচের ভিডিওটিতে কিছু দ্রুতগতির বল দেখে নেই।