মেসির প্রত্যাবর্তন

মৌসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোতে ৪-০ গোলের এক দাপুটে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। শনিবার রিয়াল মাদ্রিদের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় লুইস এনরিকের দল।

ম্যাচ শুরুর ১১ মিনিটেই বার্সেলোনাকে প্রথম গোল উপহার দেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ।

আর প্রথমার্ধের ৩৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন বার্সেলোনার ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার।

বার্সালোনার গোল মানেই নেইমার কিংবা সুয়ারেজ। মেসির অনুপস্থিতিতে বিগত কয়েক ম্যাচ ধরে এটাই হয়ে উঠেছিল বার্সার নিয়মিত দৃশ্য। তবে ৫৩ মিনিটে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার এবং বার্সা অধিনায়ক আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা গোল করে সেই বৃত্ত ভাঙেন।

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ৫৬ মিনিটে ক্রোয়াট মিডফিল্ডার ইভান রাকিতিচের পরিবর্তে দীর্ঘ ৫৭ দিন পর মাঠে নামেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। উল্লেখ্য গত ২৬ সেপ্টেম্বর লা লিগায় লাস পালমাসের বিপক্ষে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়েছিলেন মেসি।

তবে মেসি গোল না পেলেও ৭৪ মিনিটে তার বাড়ানো বল থেকে দলের ৪র্থ এবং নিজের ২য় গোল করেন সুয়ারেস।

পুরো ম্যাচ জুড়ে নিজেদের ছায়া হয়ে ছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো-গ্যারেথ বেলরা। তবে বেশ কয়েকটি গোল থেকে তাদের বঞ্চিত করেন বার্সা গোলরক্ষক ক্লডিয়ো ব্রাভো।

৮৪তম মিনিটে নেইমারকে ফাউল করে লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন হামেস রদ্রিগেসের বদলি হিসেবে নামা ইসকো।

এর আগে প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শনিবার রাতে সান্তিয়াগো বার্নাবেউয়ে ম্যাচ শুরু হয়।

রাফায়েল বেনিটেজ দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে হারলো রিয়াল মাদ্রিদ। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান মজবুত হলো বার্সেলোনার। আর সমান ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে ২য় স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ।