রাগবি না খেলুন মাঠের গঠনটাতো জানুন

খেলার মাঠ: একটি রাগবি মাঠের আকৃতি সাধারণত আয়তাকার হয়। এই মাঠের ডেড বল লাইনসহ বাইরের অংশের দৈর্ঘ্য ১৪৪ মিটারের বেশী হয় না এবং প্রস্থ হবে সর্বোচ্চ ৭০ মিটার।

হাফওয়ে লাইন: রাগবি মাঠের ঠিক মাঝ বরাবর যে দাগ দেখা যায় তাকে হাফওয়ে লাইন বলা হয়। কিকঅফের মাধ্যমে এখান থেকে খেলা শুরু হয় এবং গোল হওয়ার পরও এখান থেকেই আবার কিকঅফ নিতে হয়।

১০ মিটার লাইন: হাফওয়ে লাইন থেকে এর ঠিক ১০ মিটার দূরত্বে উভয় পাশে যে দুটি দাগ থাকে তা-ই ১০ মিটার লাইন। কিকঅফের পর অবশ্যই বলটিকে এই লাইন অতিক্রম করতে হবে।

২২ মিটার লাইন: এই লাইনটি গোল লাইন বা ট্রাই লাইন থেকে ২২ মিটার দূরত্বে চিহ্নিত করা হয়।

ট্রাই লাইন: এই লাইন ফুটবলের গোললাইনের মত। এই লাইনের উপরে গোল পোস্ট থাকে।

গোলপোস্ট: আমেরিকান ফুটবলের গোলপোস্টের মত একই মাত্রায় থাকে রাগবির গোলপোস্ট। এটি ৫.৬ মিটার চওড়া থাকে এবং ৩ মিটার উঁচু ক্রসবার থাকে।

ডেড বল লাইন: ট্রাই লাইন বা গোল লাইনের পরে অতিরিক্ত ১০ থেকে ২২ মিটারের পরে মাঠের শেষপ্রান্তই হচ্ছে ডেড বল লাইন। বল এই লাইনের বাইরে গেলে ডেড বল হিসেবে গণ্য করা হয়।

টাচ ইন গোল লাইন: ট্রাই লাইন বা গোল লাইন থেকে ডেড বল লাইন পর্যন্ত যে জায়গা থাকে একে টাচ ইন গোল লাইন বলা হয়। এই লাইনটি কোনভাবেই ২২ মিটারের বেশি চওড়া হবে না।

এছাড়া আড়াআড়িভাবে মাঠের দু পাশে ৫ মিটার লাইন ও ১৫ মিটার লাইন থাকে। লাইন আউটের সময় খেলোয়াড়দের এই দুই লাইনের মধ্যে থাকতে হবে।

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট