সাইকেল নিয়ে তারার ভুবনে

2170
141114-starry-night-jsw-150p-55cbe6a092e221abfad2e0b6bbc4b5ef

সাইকেলে চড়ে ঘুরে বেড়াতে কার না ভালো লাগে? আর ঘুরে বেড়ানোর সে পথে যদি নেমে আসে আকাশের সব তারা, তবে কেমন মজা হবে! এমনই মজার কান্ড ঘটেছে নেদারল্যান্ডসের এইন্ডোভেন শহরে।

শুধুমাত্র সাইকেলে চড়ে ঘুরে বেড়ানোর জন্য চমৎকার একটি পথ তৈরি করা হয়েছে শহরটিতে, রাতের বেলা যে পথের বুকে তারাদের মেলা বসে।

তবে আকাশের তারা তো আর মাটিতে নামিয়ে আনা সম্ভব না, তাই অন্ধকারে আলো ছড়াতে পারে এমন বিশেষ রং(ফসফরোসেন্ট)-এ রাঙানো প্রায় ৫০ হাজার পাথর এবং সৌরশক্তি সঞ্চয় করে জ্বলতে পারে এমন এল.ই.ডি. বাতি গোটা রাস্তার মাটিতে পুঁতে তৈরি করা হয়েছে এই বিশেষ বাইসাইকেল লেন।

সন্ধ্যা পেরোলেই সে পথের বুকে মিটিমিটি আলো ছড়ায় অজস্র কৃত্রিম তারা। এইন্ডোভেন শহরটি হলো পৃথিবীবিখ্যাত চিত্রশিল্পী ভ্যানগগের জন্মভূমি, এবং এখানেই কেটেছে শিল্পীর ছোটবেলা। এই শহরটিকে নিয়ে অনেক বিখ্যাত ছবিও এঁকেছেন ভ্যানগগ।

ভ্যানগগের আঁকা সবচেয়ে জনপ্রিয় ছবি “The starry night” বা “তারাভরা রাত” থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই আলোছড়ানো এই বাইসাইকেল লেন তৈরীর পরিকল্পনা গ্রহণ করেন বলে জানান ডাচ ডিজাইনার ডান রুজগার্ড।

ভ্যানগগের ১২৫তম মৃত্যুদিবসে তাঁর সৃষ্টিকর্মের উদ্দেশ্যে সম্মাননা জানানো এবং বিশ্বজুড়ে সাইকেল আরোহীদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি করা ও সাইকেলে চড়ে ঘুরে বেড়ানোকে আরো জনপ্রিয় আনন্দদায়ক করাই এর প্রধান উদ্দেশ্য বলে জানান রুজগার্ড।