স্মার্টফোনের ব্যাটারি নিয়ে ভুল তথ্যগুলাে আপনিও বিশ্বাস করেন!

5054
samsung smartphones

স্মার্টফোনের ব্যাটারির ব্যবহার নিয়ে আমাদের অনেকের মধেই অনেক রকম ভ্রান্ত ধারণা প্রচলিত রয়েছে। যেমনঃ রাতে ঘুমানোর সময় মোবাইল চার্জে রেখে ঘুমানো যাবে না অথবা চার্জে থাকা অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার করা যাবে না ইত্যাদি।

একসময় এসব ধারণা হয়তো সত্যি হলেও এখনকার আধুনিক স্মার্টফোনের জগতে এসব অনেক ধারণাই ভুল ধারণায় পরিণত হয়েছে। এরকমই কিছু ভুল ধারণা নিয়ে এই প্রতিবেদন।

ClassTune

১. সারারাত ফোন চার্জে লাগিয়ে রাখলে ব্যাটারি নষ্ট হয়ে যায়
এটি সবার মাঝে প্রচলিত একটি সাধারণ ধারণা। রাতে ফোন চার্জে লাগিয়ে ঘুমিয়ে গেলে ব্যাটারি অতিরিক্ত চার্জ হয়ে নষ্ট হয়ে বলে মনে করে থাকেন অনেকেই। কিন্তু এটি সঠিক নয়। আধুনিক স্মার্টফোন আসলেই স্মার্ট। এরা জানে ঠিক কতটুকু চার্জ তাদের দরকার। তাই নির্দিষ্ট পরিমাণে চার্জ হওয়ার পর স্মার্টফোন নিজেই চার্জ নেয়া বন্ধ করে দেয়।

২. চার্জ সম্পূর্ণ শেষ হয়ে যাওয়ার পর চার্জ দেয়া ভালাে
আমাদের মধ্যে একটা প্রচলিত ধারণা রয়েছে যে ব্যাটারি সম্পূর্ণ শেষ হলেই নতুন করে চার্জ দেয়া উচিত। এটা নাকি ব্যাটারির জন ভালো। কিন্তু এটা ভালো তো নয়ই বরং ক্ষতিকর। ব্যাটারির মধ্যে অসংখ্য ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কোষ থাকে। এসব কোষ যত বেশি ব্যবহৃত হবে ব্যাটারির আয়ু তত কমতে থাকবে। তাই যত দ্রুত চার্জ দেয়া যায় ততই মঙ্গল।

৩. বেশি চার্জ দিলে ব্যাটারির আয়ু কমে যায়
হ্যাঁ, এ কথাটি সত্য। তবে আংশিক। ব্যাটারির কোষগুলো যত বেশি ব্যবহৃত হয় এর ক্ষমতা ততই কমতে থাকে। তবে নিয়মিত ফুল সাইকেল চার্জ করলে এই ক্ষতি কম হয়।

৪. চার্জে লাগানো অবস্থায় ফোন ব্যবহার করা যাবে না
অনেকেরই ধারণা চার্জ হওয়া অবস্থায় ফোন ব্যবহার করতে গেলে আপনি বৈদ্যুতিক শক খেতে পারেন। কিন্তু এটা আদৌ ঘটে না। হ্যাঁ, এটা ঘটতে পারে যদি আপনি ভেজা হাতে ব্যবহার করতে যান অথবা নিম্নমানের চার্জার ব্যবহার করেন। এছাড়া আপনি স্বাভাবিক অবস্থায় আপনি ফোনে কথা বললে বা এসএমএস করলে আপনার চিন্তার কিছু নেই। তবে চার্জের সময় ফোন ব্যবহার না করলে তা দ্রুত চার্জ হয়।

৫. অরিজিনাল চার্জার ব্যবহার না করলে ব্যাটারি নষ্ট হয়ে যায়
এই কথাটি কিছুটা সত্য। আপনি যদি নিম্নমানের সস্তা চার্জার ব্যবহার করেন তাতে আপনার ব্যাটারির ক্ষতি হবার অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ভালো ভালো কিছু থার্ড-পার্টির চার্জার পাওয়া যায় যেগুলোতে ক্ষতি হবার সম্ভাবনা খুবই কম।