পর্বতটি দেখতে টেবিলের মতো

2207
Table Mountain
ছবি : সংগৃহীত

দক্ষিন আফ্রিকার অন্যতম শহর কেপটাউনে অবস্থিত পর্বতটির নাম Table Mountain বা টেবিল পর্বত। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এক হাজার ৮৬ মিটার বা ৩৫৬৩ ফুট উঁচু এই পর্বতটি কিন্তু একটি নয় বরং কয়েকটি পর্বতের সমষ্টি। প্রায়ই মেঘে ঢাকা থাকে পর্বতের চূড়াটি।

দূর থেকে দেখলে মনে হয় পর্বতের জামা যেন আকাশের মেঘ! মজার বিষয় হচ্ছে, দেখলে আরও মনে হবে যে পুরো কেপটাউন শহরটিকে এক নিরাপত্তার বেষ্টনিতে আটকে রেখেছে সুন্দর এই পর্বতটি, যেন শহরের গায়ে হেলানো একটি দেয়াল! পর্বতের দুটি চূড়া রয়েছে। একটি পূর্বের ডেভিল পার্ক ও অপরটি লায়ন’স হেড। প্রায় ২ দুই হাজার ২০০ প্রজাতির বৃক্ষ রয়েছে এখানে। শুধু তাই নয়, এখানে বহু পশুপাখি এবং রয়েছে অনেক স্তন্যপায়ীর বসবাস।

ClassTune

টেবিল পর্বতটির সাথে নেলসন ম্যান্ডেলার স্মৃতি জড়িয়ে আছে। কেপটাউন এ অবস্থিত সমুদ্রের মাঝের একটি দ্বীপ, রোবেন আইল্যান্ড যেখানে নেলসন ম্যান্ডেলাকে ১৮ বছর (১৯৬৪-১৯৮২) কারাবন্দী করে রাখা হয়। ম্যান্ডেলা প্রতিদিন এই টেবিল পর্বতের দিকে তাকিয়ে তাঁর নিজ দেশের কথা মনে করতেন আর ভাবতেন কিভাবে তাঁর নিজ দেশের লোকেরা জাতিবাদ, বর্নবাদের কারণে তাঁর কাছ থেকে তাঁর পরিবার ও সময় সব কিছু কেড়ে নিয়েছে।তাই, তিনি এই পর্বত এর দিকে তাকিয়ে শপথ নিয়েছিলেন যে, একদিন তিনি তাঁর দেশে অবশ্যই ফিরে যাবেন।

এই পর্বতটি যেমন মানুষকে বিমোহিত করে তেমনি মৃত্যুর কারণ হয়েও দাঁড়াতে পারে।এই পর্বতটিতে উঠা যেমন সহজ ঠিক তেমনি নেমে আসা ততটাই জটিল। নেমে আসার পথের সংখ্যা এতটাই বেশি যে মানুষকে দ্বিধায় ফেলে দেয়।অনেকে পথ হারিয়ে চলে যায় পর্বতের গভীর পাদদেশে কিংবা অন্য কোন জঙ্গলে।

Table Mountain
ছবি : সংগৃহীত

পর্যটকেরা নিম্নলিখিত ক্রিয়াকলাপগুলি উপভোগ করতে পারেন টেবিল পর্বতে –

কেবল কার: পর্যটকেরা  ‘কেবল কার’-এর সাহায্যে পর্বতের সুন্দর দৃশ্যকে উপভোগ করতে পারেন । এই কেবল কার ধারণ করতে পারে ২৫ জন মানুষ। ৩০২ মিটার উঁচু দিয়ে ২৫ জনের এই কেবল কারে কেপটাউন শহরের প্রায় পুরোটাই দেখা যায়।

হাইকিং: এছাড়া, স্থানীয় বাসিন্দাদের সহায়তায় দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় উদ্যান দ্বারা পরিচালিত হোইরিকইয়াগ্লো ট্রেল একইভাবে স্থানীয় এবং পর্যটকদের মধ্যে বিখ্যাত। এই সফর-ভ্রমণটি দুই থেকে ছয় দিনের হয়ে থাকে। পর্বতের মধ্যে কিছু খাড়া পর্বতগাত্র রয়েছে, যা অভিযাত্রীদের পাড়ি দেওয়ার জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং হয়ে থাকে।

কেভিং: বিশ্বের অধিকাংশ গুহার গঠনতন্ত্র সাধারণত চুনাপাথরের দ্বারাই সংগঠিত হয়ে থাকে। তবে, টেবিল পর্বতের গুহাগুলি বালিপাথরে খোদিত হয়ে থাকে। ওয়াইনবার্গ গুহাসমূহ হল টেবিল পর্বতে অবস্থিত বৃহত্তম গুহা।

মাউন্টেন বাইকিং: পর্বতের ঢালগুলোতে রয়েছে জিপ ট্র্যাকের ব্যবস্থা যা বাইকিং-এর জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। বাইকিং রুটগুলোর মধ্যে বিখ্যাত হল ব্লক হাউসের রুটটি।

রক ক্ল্যাইম্বিং: রোমাঞ্চপ্রেমী পর্যটকের জন্য টেবিল পর্বতে রক ক্ল্যাইম্বিং একটি অন্যতম চিত্তবিনোদনমূলক মাধ্যম।