বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে ভিসি, প্রো-ভিসি ও ট্রেজারার নিয়োগের উদ্যোগ

79

দেশের যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রপতি নিযুক্ত ভাইস চ্যান্সেলর, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ও কোষাধ্যক্ষ বা ট্রেজারারের পদ শূন্য রয়েছে সেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্রুততার সঙ্গে পদগুলোতে নিয়োগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর গুরুত্বপূর্ণ এ পদগুলোতে নিয়োগ দিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে চিঠি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

গত ২২ অক্টোবর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক কামাল হোসেন স্বাক্ষরিত চিঠিতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর দেশের যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাইস চ্যান্সেলর, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ও কোষাধ্যক্ষ পদ শূন্য সেখানে জরুরি ভিত্তিতে পদগুলোতে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য অনুরোধ করা হয়।

ClassTune

চিঠিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রমে ভিসি, প্রো-ভিসি ও কোষাধ্যক্ষরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। কাজেই প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে সার্বক্ষণিকভাবে ভিসি, প্রো-ভিসি ও কোষাধ্যক্ষ থাকা বাঞ্চনীয়। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, দেশের কোনো কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি, প্রো-ভিসি ও কোষাধ্যক্ষের পদ শূন্য রয়েছে। এর ফলে ঐসকল বিশ্ববিদ্যালয়ে একদিকে যেমন একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে, অন্যদিকে ক্ষতির শিকার হচ্ছে শিক্ষার্থীগণ, ঘটছে নানারকম অপ্রত্যাশিত ঘটনা।

জানা গেছে, বর্তমানে ৪৫টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির পদ খালি রয়েছে। এছাড়া ১০৫টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ২৬টিতে রাষ্ট্রপতি নিযুক্ত ভাইস চ্যান্সেলর, ৮৫টিতে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর এবং ৫০টিতে ট্রেজারার বা কোষাধ্যক্ষ নেই।