Water Twist

Water Twist experiment

বিজ্ঞান নিয়ে অনেকের মনেই ভয়ভীতি থাকে। জটিল সব সূত্র, গাণিতিক ব্যাখ্যা আর কাঠখোট্টা সব শব্দ শুনলেই কেমন যেন ভয় ভয় লাগে। জটিল সব ঘটনাকে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা দিয়ে সহজভাবে তুলে ধরার কাজটিই করছে সায়েন্স রকস টিভি অনুষ্ঠানটি। প্রতি সপ্তাহে ২টি করে ৫২ সপ্তাহে মোট ১০৪টি মজার মজার সায়েন্স এক্সপেরিমেন্ট দেখানো হবে তোমাদের আর বলে দেয়া হবে সেটা কেন হলো, কিভাবে হলো। আজ এক ঝলক জেনে নেয়া যাক সায়েন্স রকস টিভি অনুষ্ঠানের তৃতীয় পর্বে দেখানো Water Twist পরীক্ষাটি।

তরলের ধর্মই হচ্ছে সরল; সরল পথে চলে পানি। কিন্তু এই পরীক্ষায় আমরা দেখবো পানি সরল পথে না চলে বক্রাকার বা মোচড় দিয়ে চলছে। কিভাবে ?? চলো দেখে নেই কিভাবে এই কাজটি সম্ভব হবে?

কি কি লাগবেঃ
বরাবরের মতো এবারও আমরা হাতের নাগালেই পাওয়া যায় এমন কয়েকটি উপকরণ দিয়ে পরিীক্ষাটি দেখাবো। পরীক্ষার জন্য আমাদের লাগবে এক লিটারের প্লাস্টিকের খালি পানির বোতল, বোতল ছিদ্র করা যায় এমন একটা পিন বা সূচ আর খাবার পানি।

কিভাবে করবোঃ
প্রথমে আমরা বোতলটির প্রায় তিন চতুর্থাংশ পানি দিয়েভরে নিবো ও বোতলের মুখটা শক্ত করে লাগিয়ে দিবো। তারপর বোতলের গায়ে বা নিচের দিকে পিন বা সূচ দিয়ে পাশাপাশি ৫ টা ছিদ্র করবো। এবার বোতলের মুখটা হালকা করে খুলে দিলেই দেখা যাবে যে ছিদ্রগুলো দিয়ে পাঁচটা আলাদা সারি করে পানি পড়ছে। ছিদ্রগুলোর উপর দিয়ে যদি আমরা Horizontally বা অনুভূমিকভাবে একবার আঙ্গুল নাড়ায় তাহলে দেখা যাবে যে পানি আর পাঁচটা সারিতে পানি পড়ছে না ! কয়েকটা পানির সারি যেন একসঙ্গে জোড়া লেগে গেছে। মনে হবে, সব পানির সারি এক হয়ে যেকোন এক দিকে বক্রাকারভাবে বা মোচড় দিয়ে পড়ছে। কিন্তু আমরা যদি আবার Vertically অথবা লম্বালম্বিভাবে আঙ্গুল নাড়ায় তাহলে দেখা যাবে যে পানির সারি আবার আলাদা পাঁচটা সারি হয়ে গেছে।

কেন হলোঃ
পানির এভাবে মোচড় দিয়ে বা বক্রাকারভাবে পতিত হওয়ার কারণ বলতে পারবে? মূল কারণটা হচ্ছে পানির অণুগুলোর মধ্যে আকর্ষণ বা আন্তঃআণবিক শক্তি অনেক বেশি থাকে। পানির অণুগুলো একেকটা ছোট চুম্বকের মতো, তারা একে অপরকে আকর্ষণ করে মিশে থাকে ও পানির অণুর মধ্যে Cohesive Force বা সংসক্তি বল কাজ করে। আরেকটি মজার বিষয় হচ্ছে যে, পানির অণুতে হাইড্রোজেন বন্ধন বিদ্যমান থাকে। তাই, যখন Horizontally বা অনুভূমিকভাবে আঙ্গুল নাড়িয়ে পানির কয়েকটা সারিকে একসাথে লাগানো হয় তখন পানিতে বিদ্যমান অণুগুলোর মধ্যে নিজেদের আকর্ষণের কারণে তারা একসাথে লেগে থাকে ও পানির সারিগুলো একে অপর থেকে আলাদা হতে চায় না। আবার, Vertically অথবা লম্বালম্বিভাবে আঙ্গুল নাড়িয়ে পানির সারিগুলোকে আলাদা করে দিলে তারা আবার আপনাআপনি আলাদা হয়ে যায়।