অলিম্পিকে হামবুর্গের ‘না’

1461

২০২৪ সালের অলিম্পিক আয়োজনকে ‘না’ জানিয়ে দিয়েছে হামবুর্গ। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত এক গণভোটে অল্প কিছু ভোটের ব্যবধানে তাদের অসম্মতি জানান উত্তর জার্মানির গুরুত্বপূর্ণ এই শহরের বাসিন্দারা।

ClassTune

আনুষ্ঠানিকভাবে হামবুর্গের মেয়র ওলাফ স্কলজ ঘোষণা দেন ২০২৪ সালের অলিম্পিক গেমস তার শহরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। তিনি বলেন, ‘২০২৪ সালের অলিম্পিক ও প্যারাঅলিম্পিকের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে না হামবুর্গ। সিনেট এবং আমি এ বিষয়ে ভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছি’।

হামবুর্গের পরিসংখ্যান দপ্তর ইতোমধ্যেই ভোটের ফলাফল নিশ্চিত করেছে। দেখা গেছে, ৫১.৭ শতাংশ ভোটার অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবার বিপক্ষে। অবশ্য হামবুর্গের সহযোগী শহর কিয়েল-এর ৬৬ শতাংশ বাসিন্দা এর পক্ষে। প্রায় ৫০ শতাংশ ভোটার এ গণভোটে অংশ নিয়েছে।

৩৩তম অলিম্পিক আয়োজনের বিপক্ষে যারা ভোট দিয়েছেন তারা বলছেন এই অলিম্পিক গেমস আয়োজন করতে তাদের কোষাগার থেকে প্রচুর অর্থ খরচ হবে। প্রায় ৮ বিলিয়ন ডলার অর্থের একটা বড় অংশ বহন করতে হবে হামবুর্গকে।

অন্যদিকে এই আয়োজন করতে গেলে পরিবেশেরও ক্ষতি হবে বলে তারা মনে করেন। তার ওপর সম্প্রতি প্যারিস হামলার পর এতো বড় একটা আয়োজন শহরের বাসিন্দাদের নিরাপত্তা হুমকির কারণও হতে পারে।

জার্মানিতে সর্বশেষ অলিম্পিক হয়েছিল ৪৩ বছর আগে, ১৯৭২ সালের মিউনিখ অলিম্পিক। এই নিয়ে ৭ম বারের মত বিশ্বের সবচেয়ে বড় খেলার আসর আয়োজনে অসম্মতি জানালো তারা। এর আগে ২০১৩ সালে মিউনিখে ২০২২ সালের শীতকালীন অলিম্পিক আয়োজনের বিরোধিতাও করেছিল সে শহরের বাসিন্দারা।

২০২৪ সালের অলিম্পিক গেমস আয়োজনের জন্য আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির কাছে আর প্রতিদ্বন্দ্বী আছে ৪টি শহর। এগুলো হচ্ছে, লস এঞ্জেলস, প্যারিস, রোম এবং বুদাপেস্ট। ২০১৭ সালে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি এটি নির্বাচিত করবে।