ওয়াটার স্যালুটঃ অভ্যর্থনা জানানোর এক ব্যতিক্রমী রীতি

Water Salute

ওয়াটার স্যালুট হচ্ছে কোন একটি বিমানবন্দরে একটি বিমানকে অভ্যর্থনা জানানোর রীতি। একে ওয়াটার গান স্যালুট বা ওয়াটার ক্যানন স্যালুট বলেও ডাকা হয়ে থাকে। বিমানবন্দরের অগ্নিনির্বাপক যানগুলো থেকে তির্যকভাবে পানি ছিটিয়ে এটি পালন করা হয়।

বিমানবন্দরে রানওয়ে, ট্যাক্সিওয়ে বা এপ্রনের দুইপাশে সমান সংখ্যক অগ্নিনির্বাপক গাড়ি থেকে একসাথে ধনুক আকৃতিতে পানি ছিটানো হয়। ব্যাপারটা অনেকটা বিয়ের সময় দুপাশ থেকে সারি ধরে ফুল ছিটিয়ে নতুন বরকে বরণ করে নেয়ার মত।

ClassTune

বিভিন্ন কারণে এই ওয়াটার স্যালুট দেয়া হয়ে থাকে। এদের বেশিরভাগই আনন্দদায়ক হলেও কিছু কিছু কারণ থাকে দুঃখভারাক্রান্ত। তবে কোন আইন বা বিধিনিষেধ নেই এর জন্য। কারণগুলো হচ্ছেঃ

  • নতুন কোন এয়ারলাইন্স বিমানবন্দরে আসলে
  • নতুন কোন বিমান যদি বিমানবন্দরে আসে
  • প্লেনের ক্যাপ্টেন বা সংশ্লিষ্ট কোন মর্যাদাপূর্ণ ব্যক্তি অবসর গ্রহণ করলে
  • বিমানবন্দরে কোন বিমান বা এয়ারলাইন্সের শেষ ফ্লাইট হলে
  • বর্ষবরণ বা যেকোনো উৎসব উৎযাপনে
  • জীবিত বা মৃত কোন বিশেষ ব্যক্তিকে বরণ করে নিতে

ওয়াটার স্যালুট জাহাজ এবং সাবমেরিনের মত জলযানকেও দেয়া হয়। এই স্যালুট ফায়ারবোট থেকে পানি ছিটিয়ে দেয়া হয়ে থাকে। মূলত জাহাজকে ওয়াটার স্যালুট জানানোর মাধ্যমেই এই রীতির সূচনা হয়েছিল।

Water Salute emirates

কিন্তু ঠিক কবে থেকে এই স্যালুট জানানোর রীতি শুরু হয় বা কি এর ইতিহাস সে সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায়নি। তবে বিশ শতকের শুরুর দিক থেকে ট্রান্স-আটলান্টিক জলপথে চলা বিভিন্ন জাহাজকে নিউইয়র্ক বন্দরে ওয়াটার স্যালুটের মাধ্যমে অভ্যর্থনা জানানো শুরু হয় এবং তারপর থেকে এটি একটি রীতিতে পরিণত হয় ও সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। ১৯৯০ সালের দিক থেকে বিমানের ক্ষেত্রেও এই স্যালুট রীতির প্রচলন হয়।