চোখজুড়ানো শৈল্পিক খেলা জিমন্যাস্টিক্সঃ পর্ব ২

Gymnastics

 

জিমন্যাস্টিক্স শারীরিক কলা-কৌশল প্রদর্শনের ক্রীড়াবিশেষ, যাতে দৌঁড়, লাফ, ডিগবাজী, সমারসল্টিং এবং ভারসাম্য রক্ষা করার বিষয়গুলো সংশ্লিষ্ট থাকে। অলিম্পিকে জিমন্যাস্টিক্স অন্যতম প্রধান ক্রীড়া বিষয় হিসেবে বিবেচিত। এ ক্রীড়ায় যে প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে থাকেন, তিনি জিমন্যাস্ট নামে সর্বসমক্ষে পরিচিতি লাভ করেন। জিম্যানস্টিক্সে প্রতিযোগীর দক্ষতা ও ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনের মাধ্যমে বিজয়ী নির্ধারণ করা হয়। প্রথম পর্বে আমরা আলোচনা করেছি Parallel Bar ও Pommel Horse নিয়ে। আজ জিম্যানস্টিক্সের দ্বিতীয় পর্বে VaultUneven Bars নিয়ে আলোচনা করা হবে।

Vault:

Vault অনেকটা অ্যাথলেটিক্সের হাই জাম্পের মত। তবে কিছুটা আলাদা বৈচিত্র্য তো থাকবেই। এক্ষেত্রে একটি কাঠের টুকরো (ভল্ট) মাটি থেকে কিছুটা ওপরে স্থাপিত থাকে যা ডিঙ্গিয়ে জিমন্যাস্টদের কসরত দেখাতে হয়। প্রথমে কিছুটা দূর থেকে দৌড়ে এসে স্পিংবোর্ডে (ভল্টের একপাশে থাকে) পা দিয়ে ধাক্কা দেন জিমন্যাস্টরা । ধাক্কার ফলে ভল্টে হাতের সাপোর্টে জিমন্যাস্টরা নিজের শরীর শূন্যে ভাসিয়ে দেন এবং অবশেষে ঝাঁপিয়ে পড়েন ভল্টের অপর পাশে। ভল্টের উপর শূন্যে থাকা অবস্থায় একেক জিমন্যাস্ট একেকরকম কসরত দেখিয়ে থাকেন।

জিমন্যাস্টদের ফলাফল নির্ধারনে সাধারণত চারটি ধাপ বিবেচনায় রাখা হয়। ভল্টে উঠার পূর্ব মুহূর্ত, ভল্টে উঠে হাতের সাপোর্ট, ভল্টের উপর শূন্যে দেখানো কসরত ও মাটিতে ঠিকভাবে অবতরণ। গতি ও শক্তির পাশাপাশি কত নিখুঁতভাবে একজন জিমন্যাস্ট মাটিতে অবতরণ করছে তা মূলত ফলাফল নির্ধারনে বড় ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করে।

Uneven Bars:

Uneven Bars এই কসরতটি শুধুমাত্র মেয়ে জিমন্যাস্টরা দেখিয়ে থাকেন। এই ক্ষেত্রে ফাইবার গ্লাসের দুইটি দন্ড (দণ্ডের দু’পাশ কাঠের টুকরোর উপর বসানো হয়) পাশাপাশি স্থাপিত থাকে। একটি দণ্ড আরেকটি দণ্ডের চেয়ে ছোট হয়ে থাকে।

দণ্ডটি ধরে ঝুলে মেয়ে জিমন্যাস্টরা বিভিন্ন কসরত দেখান এবং একটি দণ্ড থেকে আরেকটি দণ্ডে নিজের শরীর শূন্যে ভাসিয়ে থাকেন। সাধারণত দন্ড ধরে ঝুলন্ত অবস্থায় শরীরকে পুরো দন্ডটির সাথে ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে আনা হয়। আরেকটি মজার ব্যাপার হচ্ছে, এর সাথে সাথে শরীর বাঁকিয়ে দিক পরিবর্তন করে কসরত দেখানো হয়।