দশটি কাজ আপনাকে করে তুলবে চাঙ্গা

পর্যাপ্ত ঘুম আমাদের জন্য অপরিহার্য। সুস্থ থাকতে হলে দিনে কমপক্ষে ৮ ঘণ্টা ঘুম দরকার। কিন্তু বিভিন্ন কারণে হয়তো ৮ ঘণ্টা ঘুমানো আমাদের পক্ষে সম্ভব হয়ে উঠে না। তাই সারাদিন আমাদের মধ্যে ক্লান্তি কাজ করে, ঘুম চোখে লেগেই থাকে। কাজ করতে সমস্যা হয়। এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে কয়েকটি টিপস বেশ কাজে দেয়-

১. লেবু
কাজের সময় ঘুমে চোখ ঢুলুঢুলু। এক টুকরো লেবু চুষে রস খান। এই সাইট্রাস ফলটি আপনার চোখের ঘুম দূর করতে বেশ সাহায্য করবে।

২. একটু হাঁটুন
আপনি যত ব্যস্তই হয় না কেন কাজের ফাঁকে হাঁটার একটু সময় নিশ্চয়ই বের করতে পারবেন। তাহলে একটু হেঁটে নিন। হাঁটা আপনার দেহের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে যা আপনার শক্তি যোগাবে।

৩. পেপারমিন্ট ব্যবহার করুন
কাজের মাঝে দেহে কান্তি ভর করলে পেপারমিন্ট জাতীয় দ্রব্য ব্যবহার করুন। একটা পেপারমিন্ট গাম খান বা স্প্রে ব্যবহার করুন অথবা পেপারমিন্ট বডি ওয়াশ ব্যবহার করুন।

৪. মেডিটেশন করুন
সারাদিনের কাজের জন্য শক্তি পেতে সকালে ৫ মিনিট হলেও মেডিটেশন করুন। মেডিটেশন আপনার চাপ দূর করবে, সচেতনতা বাড়াবে আর মনোযোগ দিতে সাহায্য করবে।

৫. পানি পান করুন
শরীরে পানির পরিমাণ কমে গেলে আপনার মধ্যে ক্লান্তি চলে আসবে। এর থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত পানি পান করুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে ২ গ্লাস পানি পান করলে তা আপনার সারাদিনের কাজের জন্য অতিরিক্ত কিছু শক্তি যোগাবে। সাথে সবসময় একটা পানির বোতল রাখার চেষ্টা করুন।

৬. ইয়োগা
ইয়োগার মাধ্যমে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করলে তা আপনার ক্লান্তি দূর করে শক্তি সরবরাহ করবে। এর ফলে আমাদের মস্তিষ্কে পরিমাণমত অক্সিজেন পৌঁছায় যা আমাদের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ায়।

৭. গান শুনুন
গান আপনার মস্তিষ্ককে সজাগ করে। তাই কাজের ক্লান্তির ফাঁকে একটু গান শুনলে আপনার কাজের জন্য সহায়ক হবে বলেই মনে হয়।

৮. মনে করুন যে আপনার ভালো ঘুম হয়েছে
এটা আসলে নিজের মনকে বোঝানোর একটা কৌশল। রাতে আপনার ভালো ঘুম না হলে সারাদিন ক্লান্ত লাগবে। তারপরও মনকে বোঝান যে আপনার ঘুম হয়েছে, আপনি কাজ করার জন্য ফিট আছেন।

৯. গোসল করুন
ঘুম তাড়াতে গোসল একটি কার্যকরী পন্থা। সকালে ঘুম থেকে উঠে গোসল করলে আপনার ঘুমের ক্লান্তি দূর হয়ে সারাদিনের কাজের জন্য শক্তি পাবেন। এক্ষেত্রে গরম আর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল উভয়ই কার্যকরী।

১০. সেলফ-আকুপাংচার
চাইনিজরা আকুপাংচার হাজার বছর ধরে ব্যবহার করছে। গবেষণা বলছে, শরীরের কিছু নির্দিষ্ট জায়গায় চাপ দিলে তা আপনাকে জেগে থাকতে সাহায্য করবে। তাই এইভাবে ম্যাসেজ করুনঃ ঘাড়ের উপরিভাগের উভয় পাশ, দুই হাতের উল্টোপিঠের বৃদ্ধাঙ্গুল এবং অনামিকার মধ্যবর্তী অঞ্চল, হাঁটুর একটু নিচে আর পায়ের তালুর মাঝামাঝি জায়গায়।