দুশ্চিন্তা দূর করার ৭ বৈজ্ঞানিক উপায়

Tension

মানুষের দৈনন্দিন জীবন নিয়ে, পরিবার নিয়ে, কাজ নিয়ে বা অন্যান্য অনেক বিষয় নিয়ে দুশ্চিন্তার অন্ত নেই। এই দুশ্চিন্তার ভার মানুষকে যেন পিছু ছাড়তে চায় না।

দুশ্চিন্তা আপনার মনের শান্তি নষ্ট করে, আপনার স্বাস্থ্যকেও ক্ষতিগ্রস্ত করে। ক্রমাগত দুশ্চিন্তার ফলে মানুষের ক্ষুধা এবং ঘুম নষ্ট হয়, সামাজিক সম্পর্ক খারাপ হয়, কাজের গতিও কমে যায়।

এর ফলে গুরুতর মানসিক এবং শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে থাকে যেমন হতাশা, হজমে সমস্যা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া, হার্টের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপ এমনকি আত্মহত্যা প্রবণতা ।

তাই শারীরিক ও মানসিকভাবে সুস্থ থাকতে চাইলে দুশ্চিন্তাকে দূরে রাখার কোন বিকল্প নেই। দুশ্চিন্তাকে দূরে রাখার কিছু বিজ্ঞানভিত্তিক কার্যকরী পন্থা এখানে জানানো হল।

১. একটা তালিকা করুন
আপনার মনে হতে পারে আপনি শত শত সমস্যায় ভুগছেন। তাই আপনার দুশ্চিন্তার কারণগুলোর একটা তালিকা তৈরি করুন। দেখবেন অল্প কয়েকটির পর আর কোন কারণ খুঁজে পাচ্ছেন না।

এর মধ্যে কিছু সমস্যা থাকবে যেগুলো কমবেশি সবারই থাকে। আপনি উপলব্ধি করবেন যে আপনার আসলে দুশ্চিন্তা করার খুব বেশি কারণ নেই। এটা আপনার দুশ্চিন্তা কমাতে এবং আপনাকে মানসিকভাবে শান্তি দিবে।

২. বেড়িয়ে আসুন
দুশ্চিন্তা কমাতে ঘরের বাইরে ঘুরতে যাওয়া একটি দারুণ কার্যকরী উপায়। আর এটা সবচেয়ে ভালো কাজ করে গাছগাছালি পূর্ণ কোন জায়গায় গেলে। গবেষণায় দেখা গেছে পাইন, সিডার আর ওকসহ কিছু গাছে ‘ফাইটনসাইড’ নামক একটি উপাদান থাকে যা মানুষের উচ্চরক্তচাপ কমায় এবং মানসিক চাপ দূর করে।

৩. স্বাস্থ্যকর খাবার খান
যারা দুশ্চিন্তায় ভোগেন দেখা যায় তাদের বেশিরভাগই ঠিকমতো খাওয়াদাওয়া করেন না অথবা বেশি খান কিংবা স্বাস্থ্যকর খাবার খান না। এর ফলে মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্য নিয়ে দুশ্চিন্তার উদ্রেক ঘটে।

দুশ্চিন্তা কমাতে গেলে কফি থেকে দূরে থাকাই ভালো। কফি আপনার অ্যাড্রেনালিন হরমোনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় যা আপনাকে অস্থির করে তোলে।

৪. ভাবনার জন্য সময় নির্দিষ্ট করুন
অনেকসময় কোন ঘটনা ঘটার অনেক আগে থেকেই আমরা দুশ্চিন্তা করা শুরু করি। এটা আদতে আমাদের কোন কাজেই আসে না। তাই যখন থেকে ব্যাপারটা নিয়ে চিন্তা করা দরকার তখন থেকেই তা শুরু করুন। এর আগ পর্যন্ত সেটা ভুলে থাকার চেষ্টা করুন।

৫. মেডিটেশন
মানসিক চাপ দূর করে মনকে শান্ত করার জন্য মেডিটেশন একটি অত্যন্ত কার্যকরী ব্যায়াম। কার্নেগী মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে ২৫ মিনিট করে টানা ৩ দিন মেডিটেশন করলে তা হতাশা এবং দুশ্চিন্তা অনেকখানিই দূর করতে সহায়তা করে।

৬. নিজেকে ব্যস্ত রাখুন

দুশ্চিন্তাকে মাথা থেকে দূরে রাখতে হলে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন। আপনার মস্তিষ্ক এবং হাত ব্যস্ত থাকে এমন কোন কাজ করুন যেমন গেম খেলুন বা কোন হস্তশিল্প তৈরি করুন।

৭. ব্যায়াম করুন
যে কোনো শারীরিক বা মানসিক সমস্যাকে দূর করতে ব্যায়াম করা খুব উত্তম একটি উপায়। ব্যায়াম করলে দেহে সেরেটোনিনের মাত্রা বৃদ্ধি পায় যা দুশ্চিন্তা এবং মানসিক চাপ হ্রাস করে।