নাটমেগঃ খেলোয়াড়ের শৈল্পিক কারসাজি

ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ ফুটবল ২০১৪-২০১৫ মৌসুমের রাউণ্ড অফ সিক্সটিনের খেলায় বার্সেলোনা বনাম ম্যানচেস্টার সিটির খেলায় সিটিরজেমসমিলনার কে না ছুঁয়েই পায়ের কারসাজিতে তাঁকে ফেলে দেন লিউনেল মেসি ! মিলনার বল নেয়ার জন্যে মেসির সামনে আসতেই মেসি দু’পা ঘুরিয়ে ডান থেকে হঠাৎই বলটিকে বাম দিকে এনে মিলনার এর পায়ের ভেতর দিয়ে কাটিয়ে নিয়ে যান। বেচারা মিলনার তখন তাল সামলাতে না পেরে একেবারে মাটিতেই পড়ে যায়। মেসির এই কারসাজির নামই “নাটমেগ”।

ফুটবল এক ধরনের আউটডোর খেলা, এটি আমরা সবাই জানি। পৃথিবীতে অনেক রকমের খেলাই আছে। কিন্তু ফুটবল খেলার মত শৈল্পিক খেলা দ্বিতীয়টি নেই। ফুটবল খেলাকে এই শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে যেতে যাদের অবদান সবচেয়ে বেশি তাঁদের মধ্যে বেশ কয়েকটি নাম উল্লেখযোগ্যঃ পেলে, বেকেনবাওয়ার, ম্যারাডোনা, রোনালদো দ্যা ফেনোমেনন, রোনালদিনহো আর বর্তমান প্রজন্মের মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, সুয়ারেজ এবং নেইমার সহ আরও বেশ কয়েকজন।

ClassTune

মাঠের খেলাকে শিল্পের পর্যায়ে তুলে নিতে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন শিল্পের প্রদর্শনী। আর ফুটবল মাঠে এই শিল্পের প্রদর্শনী করার একমাত্র উপায় দৃষ্টিনন্দন ড্রিবলিং। বিভিন্ন কৌশলে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করে বল বের করে নিয়ে যাওয়াই ড্রিবলিং। আর ড্রিবলিং এর একটি অনন্য প্রয়োগ হচ্ছে “নাটমেগ”।

প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়ের দু’পায়ের ভেতর দিয়ে বল পাস করে দেয়ার এই কৌশল বহু পুরনো হলেও এর প্রয়োগ ইদানিং বেড়েছে। আগে এটি দেখা যেতো না বললেই চলে। বল পাস করার জন্যে, কিংবা বল কাটিয়ে নেয়ার জন্যে এবং গোলকিপারের সামনে গিয়ে খুব সহজে ধোঁকা দিয়ে গোল দেয়ার জন্যে বিখ্যাত এই পদ্ধতি।  

শুধু ফুটবল খেলায় নয়, বাস্কেটবল, আইস হকি কিংবা হ্যান্ডবলের মত খেলায় খুবই কার্যকরী এই নাটমেগ।