প্রকৃতির বন্ধু উইপোকার ঢিবি !

aus-00006

উইপোকা… আইসোপ্টেরা নামক বর্গের এক অনন্য পোকা এটি । 

যদিও উইপোকা নাম শুনলেই আমাদের মনে এমন এক পোকার ছবি আসে, যা দেখতে সুন্দর নয়, যার কাজ হচ্ছে জিনিসপত্র কাটাকাটি করা, উঁচু উঁচু ঢিবি তৈরী করা ইত্যাদি। 

ClassTune

ছোট্ট একটি পোকা। কিন্তু এ পোকাটির অত্যাচারে সব সময় মানুষ ভীতসন্ত্রস্ত থাকে। পোকাটার শরীর খুবই নরম। শরীরে কোনো শক্ত খোলস নেই, পশমও নেই। অথচ সে মানুষের আসবাবপত্র, কাপড় আর কাগজপত্র কেটেকুটে নিঃশেষ করে দেয়।

কিন্ত বাস্তবে যতটুকু ক্ষতি এরা সাধন করে, তার চেয়ে হাজার গুন বেশি ভালো কাজ করে আমাদের উপকার করে এই উইপোকা।

বিস্তারিত বলার আগে এক ঝলক দেখে নেয়া যাক প্রাণীজগতে উইপোকার অবস্থানঃ

Kingdom:Animalia

Phylum: Arthropoda

Class: Insecta                                                                    

Subclass:Pterygota

Infraclass:Neoptera                                         

Superorder:Dictyoptera

Order:Blattodea

Infraorder:Isoptera

 

এশিয়াতে প্রায় ৪৩৫ প্রজাতির উইপোকা পাওয়া যায়। তবে সবচেয়ে কম প্রজাতির উইপোকা পাওয়া যায় ইউরোপে। এখন পর্যন্ত মাত্র ১০ প্রজাতির উইপোকার সন্ধান পাওয়া গেছে ইউরোপে। আর সবচেয়ে বেশি আফ্রিকাতে। এখন পর্যন্ত প্রায় ১০০০ প্রজাতির উইপোকার সন্ধান মিলেছে আফ্রিকার জঙ্গলগুলোতে।

অনেক সময় বাসা বাড়ির বাইরে দরজার সামনে, কিংবা ঘরের ভেতরে ছোটো বড় নানা আকারের ঢিবি দেখা যায়। বেশিরভাগ মানুষই এসকল ঢিবি দেখে ভয় পেয়ে থাকেন।  তবে এদের দ্বারা আমরা যতটুকু উপকৃত হই, তাঁর তুলনায় খুব অল্পই ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় আমাদের।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা প্রমান করেছেন, তুলনামুলক শুকনো এলাকায় খরা কিংবা মরুকরণ ঠেকাতে পারে উইপোকা। এমনকি জলবায়ু পরিবর্তনের আগ্রাসী গতি রোধ করতেও সক্ষম হবে উইপোকা।

কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, উইপোকার ঢিবি মাটির আর্দ্রতা এবং পুষ্টি সংরক্ষন করে থাকে। প্রতিটি ঢিবি মাটিতে অসংখ্য ছিদ্র তৈরী করে। আর এ ছিদ্রগুলোর মাধ্যমেই শুষ্ক এলাকার ভূমিতে পানি চলাচল প্রক্রিয়া আরো তাড়াতাড়ি হয়।  এ কারণে ঢিবির আশেপাশে গাছপালার বৃদ্ধি হয় চোখে পড়ার মতো ।  

উইপোকার ঢিবির সবচেয়ে বড় তীর্থ বলা হয় ব্রাজিলের সেরাডো অঞ্চলকে। কারণ, কয়েক মাইল এলাকা জুড়ে সেখানে শুধুই উইপোকার ঢিবি রয়েছে।

প্রতি একরে প্রায় ১৩০টি করে ঢিবি রয়েছে এখানে।  প্রত্যেকটি ঢিবি প্রায় ২-৩ মিটার উঁচু। প্রতিটি ঢিবিতে একটি করে রাণী থাকে, যে প্রতিদিন কমপক্ষে ৮০০০-১০০০০ ডিম পাড়ে, যা এদের বংশবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করে।

এতো বিপুল সংখ্যক উইপোকার ঢিবি ঐ অঞ্চলের প্রাণীকূলের বেঁচে থাকার সবচেয়ে বড় অবলম্বন । শুধু এখানেই নয়, হাজার বছর ধরে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে এই উইপোকার ঢিবিগুলো জীব বৈচিত্র্য রক্ষা করে চলেছে ।