বিরােধপূর্ণ দ্বীপে চীনা বাতিঘর

1340

মালিকানা নিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে বিরোধ চলতে থাকা 'স্প্রাটলি' দ্বীপপুঞ্জে লাইটহাউজ নির্মাণের কাজ শেষ করেছে চীন। গত মে মাসে তারা এখানে দুটি লাইটহাউজ নির্মাণের ঘোষণা দেয়।

নানশা দ্বীপে অবস্থিত এই লাইটহাউজগুলো ইতোমধ্যেই কাজ শুরু করে দিয়েছে। এদের একটির নাম হুয়ায়াং জিয়াও, এটি অবস্থিত কুয়ার্টন রিফে। আরেকটি চিগুয়া জিয়াও, এর অবস্থান জনসন সাউথ রিফে।

এই দুটি লাইটহাউজের স্টেশনই তৈরি করা হয়েছিলো আশির দশকের শেষের দিকে। উভয় লাইটহাউজের ফোকাল প্যানেল প্রায় ৫২ মিটার এবং প্রতি ৮ সেকেন্ডে এরা ৫০ মিটার জায়গা জুড়ে চক্রাকারে আলো দেয়।

স্প্রাটলি দ্বীপপুঞ্জ ১০০টির বেশি দ্বীপ ও শৈলশিরার সমন্বয়ে গঠিত। উপবৃত্তাকারে ১ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ৪০০ কিলোমিটার প্রস্থজুড়ে এই দ্বীপপুঞ্জ দক্ষিণ চীন সাগরে অবস্থান করছে।

তবে এই স্প্রাটলি দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বহুবছর ধরে বিভিন্ন দেশের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। এর আশপাশের দেশগুলো বিশেষ করে মালয়শিয়া, ফিলিপাইন এবং ভিয়েতনাম নিজেদের এই দ্বীপের মালিক বলে দাবি করে এবং দখল নেয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছে।

সম্প্রতি চীন এখানে তাদের সামরিক ঘাঁটি তৈরি করেছে যা অন্য দেশগুলোর মাথাব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।