ভিটামিন ক্যাপসুল শরীরের কতোটা উপকারী?

1509
vitamin-e-capsules

আজকাল ত্বক কিংবা চুলের পরিচর্যায় প্রায়ই দেখি অনেকেই বিভিন্ন ধরণের ভিটামিন ক্যাপসুল খেয়ে থাকেন। কিন্তু কখনও কি ভেবে দেখেছেন এই ভিটামিন ক্যাপসুলগুলো শরীরের জন্য কতোটা উপযোগি? আসলেই এর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা?

গত কয়েক বছরে ভিটামিনের উপর বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, ভিটামিন ক্যাপসুল শরীরের উপকারের চেয়ে বরং ক্ষতিই বেশি করে থাকে! অতিরিক্ত ভিটামিন শরীরের জন্য বিষ হতে পারে। বরং ভিটামিনের জন্য সতেজ খাবার ও ফল বেশি কার্যকরী।

ClassTune

ভিটামিন ক্যাপসুলের প্রভাবে বিভিন্ন রোগ তৈরি হওয়ার সুযোগ রয়েছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া না দেখা গেলেও কিছু ক্ষেত্রে বড় ধরণের রোগ যেমন ক্যান্সার হওয়ার কারণও পাওয়া গেছে ভিটামিন ক্যাপসুল থেকে।

অধিকাংশ সময়েই সাপ্লিমেন্ট বা বাড়তি ঔষধ হিসেবে ভিটামিন দেয়া হয়। তবে ভয়াবহ বিষয় হলো- ভালোর পাশাপাশি এটি শরীরে ক্ষতিকর কোষ তৈরি করতে পারে। আপনি যদি অধিক পরিমানে ভিটামিন নিয়ে থাকেন তাহলে এটি শরীরের স্বাভাবিক নিয়ন্ত্রণ, শারীরবৃত্তীয় কার্যক্রম বাঁধাগ্রস্থ হয় ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রুপ নেয়।

স্বাভাবিকভাবে বলা হয়, সতেজ ও বিভিন্ন ধরণের ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার শরীরের যে উপকার করে বা পুষ্টি পূরণ করে তা পিল বা ক্যাপসুল পারে না। তাই ঔষধের মোড়কে যাই লেখা থাকুক না কেনো, তা একেবারেই প্রয়োজন না হলে পরিহার করুন। বিপরীতে ভিটামিনসমৃদ্ধ খাবার বা ফল খান।

তথ্যসূত্র : টিপস অন লাইফ অ্যান্ড লাভ