ম্যান বুকার পেলেন ‘লাজলো’

এ বছর ম্যান বুকার আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন হাঙ্গেরিয়ান লেখক লাজলো ক্রাসনাহরকাই। আন্তর্জাতিক সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখার জন্য প্রতি ২ বছর অন্তর এ পুরস্কার দেয়া হয়। তিনি এবছর পুরস্কৃত হয়েছে তার লেখনীর ‘গভীর কল্পনা এবং জটিল আবেগের’ জন্য।

ClassTune

বিচারক প্যানেলের প্রধান ম্যারিনা ওয়ারনার ৬১ বছর বয়সী এ লেখকের নাম ঘোষণা করেন। "The Melancholy of Resistance", "Seiobo There Below", "Satantango" এসব বইয়ের জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন তিনি। পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন ৯০ হাজার মার্কিন ডলার। লাজলো ৬ষ্ঠ ব্যক্তি যিনি এ পুরস্কার পেয়েছেন।

 

সাহিত্যে অবদানের জন্য প্রতি বছর ম্যান বুকার পুরস্কার প্রদান করা হয়। একই সাথে ম্যান বুকার আন্তর্জাতিক পুরস্কার দেয়া হয় আন্তর্জাতিকভাবে। একজন বিশেষ ব্যক্তিকে পুরস্কার দেয়া হয় যার লেখাগুলো ইংরেজিতে প্রকাশিত হয়েছে।

অ্যালিস মুনরো, ফিলিপ রথ আর চিনুয়া আচেবে এর আগে এই পুরস্কার পেয়েছেন। লন্ডনে এই পুরস্কার ঘোষণা করা হয় যেখানে ১০ জন নির্বাচিত লেখকের মাঝ থেকে লাজলোকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

নিজের লেখার জন্য লাজলো ক্রাসনাহরকাই এর আগেও পুরস্কৃত হয়েছেন। ১৯৯৩ সালে "The Melancholy of Resistance"  বইয়ের জন্য জার্মানি থেকে বেস্ট এনলিস্ট পুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়া তিনি ‘কসুথ’ পুরস্কারও পেয়েছেন যেটা হাঙ্গেরির সবচেয়ে সম্মানজনক সাংস্কৃতিক পুরস্কার।
লাজলো ক্রাসনাহরকাই ১৯৫৪ সালের ৫ জানুয়ারি হাঙ্গেরির গিউলা শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম জিওরজি ক্রাসনাহরকাই। ১৯৮৫ সালে তার রচিত ‘সাটানট্যাঙ্গো’ প্রকাশিত হলে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান। বইয়ের পাশাপাশি তিনি কয়েকটি চিত্রনাট্যও লিখেছেন।