সরে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ

2945
australia subcontinent

অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ ক্রমাগত নিজের অবস্থান থেকে সরে যাচ্ছে। সম্প্রতি জানানো হয়েছে প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত এই মহাদেশ গত ২২ বছরে উত্তর দিকে ৫ ফিট সরে গিয়েছে।

অস্ট্রেলিয়াকে কখনো কখনো ‘নিচের দিকে স্থলভূমি’ বলে সম্বোধন করা হয়। কেননা এই মহাদেশ পুরোপুরি দক্ষিণ গোলার্ধে এবং মানচিত্রের নিচের দিকে অবস্থান করছে। কিন্তু যেভাবে এটি উত্তর দিকে সরে যাচ্ছে তাতে মনে হচ্ছে অদূর ভবিষ্যতে এটিকে ‘আর নিচের দিকে স্থলভূমি নয়’ বলে ডাকা হবে।

ClassTune

বিজ্ঞানীদের মতে পৃথিবীর উপরিভাগ এক ধরণের শক্ত আবরণ দিয়ে গড়া। এই আবরণ আবার বিভিন্ন বড় বড় খণ্ডে বিভক্ত যেগুলোকে বলা হয় প্লেট। মহাসাগর আর মহাদেশগুলো এইসব প্লেটের উপর অবস্থান করছে। এসব প্লেটের নিচে ম্যাগমা নামক অতি উত্তপ্ত গলিত লাভা বিরাজ করছে। ম্যাগমার উপরে ভাসমান এসব প্লেট ক্রমাগত সরে যাচ্ছে। তবে এই অবস্থান পরিবর্তন খুবই ধীরগতিতে হয়, বছরে বড়জোর ৫ থেকে ১০ সেন্টিমিটার। অস্ট্রেলিয়ান প্লেট সবচাইতে দ্রুত অবস্থান পরিবর্তন করা মহাদেশীয় প্লেট।

আমরা পৃথিবীতে কোন জায়গার সঠিক অবস্থান নির্ণয় করি অক্ষরেখা আর দ্রাঘিমারেখা দিয়ে। যদি কোন জায়গা তার অবস্থান পরিবর্তন করে তাহলে অক্ষরেখা আর দ্রাঘিমারেখাও সে অনুসারে পরিবর্তন করতে হয়। অস্ট্রেলিয়া ২২ বছর আগে সর্বশেষ তাদের অক্ষরেখা আর দ্রাঘিমারেখা পরিবর্তন করেছিল। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া এটি পরিবর্তন করবে খুব শীঘ্রই। কেননা স্বচালিত গাড়ি আর ড্রোনের মত অনেক আধুনিক প্রযুক্তিপণ্যের জন্য নিখুঁত অবস্থান ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়ে।

বর্তমানে পৃথিবীর যা অবস্থান তা আগে এরকম ছিল না। প্রায় ২২৫ মিলিয়ন বছর পূর্বে সবগুলো মহাদেশ একসাথে লেগে ছিল। ধীরে ধীরে এগুলো পরস্পর থেকে সরে এসে এখনকার রূপ নিয়েছে। এর মূল কারণ মহাদেশীয় অবস্থান পরিবর্তন বা কন্টিনেন্টাল ড্রিফট। এই একই কারণে অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ ক্রমাগত নিজ অবস্থান থেকে সরে যাচ্ছে।