হ্রাস পেয়েছে জাপানের জনসংখ্যা

population-japan
ছবি : সংগৃহীত

জাপানের জনসংখ্যা এবং দেশটির নাগরিকদের সম্বন্ধে তথ্য সংগ্রহের জন্য সেদেশের সরকার আদমশুমারি করেছে গত বছর। আর সে আদমশুমারির তথ্য থেকে জানা গেছে, ৫ বছর আগে জাপানের যে জনসংখ্যা ছিল তার চেয়ে প্রায় ১০ লাখ মানুষ কমে গিয়েছে এশিয়ার পূর্বদিকে অবস্থিত এ দেশটিতে।

১৯২০ সালে জাপানে আদমশুমারি শুরু হবার পর থেকে এই প্রথম জনসংখ্যা কমে যাওয়ার ঘটনা দেখা গেল। এরকমটা সচারাচর দেখা যায়না। সন্তান নিতে অনীহার কারণেই মূলত সেদেশের মানুষের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। সারাবিশ্বে বিভিন্ন দেশের জনসংখ্যা যেখানে বেড়েই চলেছে এবং অনেক দেশে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছে দেশের সরকার সেখানে জাপানে এই উল্টো ঘটনাটি ঘটলো। জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমতে দেখা গেলেও সাধারণত কোন মহামারী বা বড় কোন ধরণের দুর্ঘটনা ছাড়া কোন দেশের জনসংখ্যা কমতে দেখা যায় না। বর্তমানে জাপানের জনসংখ্যা ১২ কোটি ৭১ লাখ।

ClassTune

সারা বিশ্বে সবচেয়ে কম জন্মহারের দেশগুলোর মধ্যে জাপান অন্যতম। প্রতি ১ হাজারে জন্মহার এখানে মাত্র ৭.৯৩ জন। সিআইএ ওয়ার্ল্ড ফ্যাক্টবুক অনুসারে, পৃথিবীর আরেকটি দেশ রয়েছে যেটির জন্মহার জাপানের চাইতেও কম, সেটি হচ্ছে মোনাকো। বর্তমানে সবচেয়ে বেশি জন্মহার আফ্রিকার দেশ নাইজারে, প্রতি ১ হাজার জনে ৪৫.৪৫ জন।

সূত্রঃ নিউইয়র্ক টাইমস