লক্ষাধিক শিক্ষার্থীকে নিরাপদ ইন্টারনেট বিষয়ে প্রশিক্ষণ

817
Safe Internet 2019 DRMC

দেশের অন্তত ৮৬টি স্কুলের এক লাখ ২৩ হাজার শিক্ষার্থী কীভাবে নিরাপদে ইন্টারনেট ব্যবহার করা যায় এ বিষয়ে প্রশিক্ষিত হয়েছে। এছাড়া প্রায় ৫৯ হাজার শিক্ষক ও অভিভাবক এ বিষয়ে সচেতন হয়েছেন। ইন্টারনেটে কীভাবে নিরাপদ থাকা যায় সে বিষয়ে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে সচেতনতা তৈরিতে দেশব্যাপী অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই ক্যাম্পেইন।

গ্রামীণফোন, টেলিনর ও ইউনিসেফের যৌথ আয়োজনে ‘বি স্মার্ট, ইউজ হার্ট’ শীর্ষক ক্যাম্পেইনটি বাস্তবায়ন করছে চ্যাম্পসটোয়েন্টিওয়ান ডটকম। এরই অংশ হিসেবে গত ২ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশের ৮৬টি স্কুলে এই ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ClassTune

একাধিক সেশনে অনুষ্ঠিত এই ক্যাম্পেইনে শিক্ষার্থীদেরকে কীভাবে নিরাপদে ইন্টারনেট ব্যবহার করা যায় সে বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। ইন্টারনেটকে কীভাবে পড়ালেখা, যোগাযোগসহ দৈনন্দিন বিভিন্ন প্রয়োজনে ব্যবহার করা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কী করা উচিত ও কী করা উচিত নয়, কীভাবে নিজের অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখা যায়, সাইবার বুলিং থেকে রক্ষা ও সাইবার বুলিংয়ের শিকার হলে কী করণীয় এসব বিষয়ে বিষদভাবে আলোচনা করা হয়।

প্রশিক্ষণের পাশাপাশি তাদেরকে ইন্টারনেটে করণীয় ও বর্জণীয় বিষয় নিয়ে লিফলেটও প্রদান করা হয়। পাশাপাশি অনলাইন নিরাপত্তা সম্পর্কিত বিষয়গুলো সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন থাকলে কিংবা সাইবার অপরাধের শিকার হলে চাইল্ড হেল্পলাইন নাম্বার ১০৯৮ এ কল করার বিষয়েও শিশুদেরকে অবহিত করা হয়।

প্রথমবারের মতো এবারের আয়োজনে ইন্টারনেটে নিরাপদ থাকতে নিজেদের করণীয় বিষয়গুলো নিজে থেকে জানতে বিশেষায়িত সেবা ‘ইউ রিপোর্ট’ সম্পর্কেও শিশুদের অবহিত করা হয়। ইউ রিপোর্ট এর হটলাইন নাম্বার ১৬৬২৯ এ এসএমএস করে অথবা ফেসবুক পেজে যুক্ত হয়ে বিনামূল্যে এই সেবা পাবেন শিশু, অভিভাবকসহ যেকেউ।

চলতি মাসসহ আগামী অক্টোবর মাসব্যাপী এই ক্যাম্পেইনে দেশের ৫ লাখ শিক্ষার্থীকে এই প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। পাশাপাশি ২ লাখ অভিভাবক ও শিক্ষকদের মাঝে এই সচেতনতা ছড়িয়ে দেয়া হবে। বিস্তারিত এই লিংকে জানা যাবে।