প্রমান হলো ব্যাটম্যানের চেয়ে সুপারম্যান বেশি স্মার্ট

ব্যাটম্যান আর সুপারম্যান- কমিক পড়ুয়াদের কাছে অত্যন্ত পরিচিত দুটি চরিত্র। জনপ্রিয়তার দিক থেকে এই দুই সুপারহিরোর কেউ কারও থেকে পিছিয়ে নেই। কিন্তু যখন প্রশ্ন উঠে এই দুজনের মধ্যে কে বেশি স্মার্ট তখনই ভক্তরা পড়ে যান দ্বিধাদন্দে।

বেশিরভাগ ভক্তই মনে করেন ব্যাটম্যান বেশি স্মার্ট। কেননা ব্যাটম্যান ব্যবহার করে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন সব পোশাক, অস্ত্র, গাড়ি আর সরঞ্জাম। কিন্তু আরও গভীরভাবে পর্যালোচনা করলে দেখা যাবে সুপারম্যান ব্যাটম্যানের চাইতে অনেক বেশি বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন।

আসুন এখন আমরা এ ব্যাপারে যুক্তিগুলো আলোচনা করি।

১. ক্রিপটন গ্রহ যখন ধ্বংস হয়ে যাচ্ছিল তখন সুপারম্যানের বাবা জোর-এল একটি স্পেসশিপে করে পাঠিয়ে দেয় যেটা পরবর্তীতে পৃথিবীতে এসে পৌঁছায়। পৃথিবীতে আসার রাস্তায় সুপারম্যান মানে 'কাল-এল' তার বাবার কাছ থেকে ক্রিপটন গ্রহ সম্পর্কে সব জ্ঞান অর্জন করে। যেহেতু ক্রিপটন পৃথিবী থেকে অনেক উন্নত আর অগ্রসর ছিল তাতে এটা প্রমাণিত হয় যে পৃথিবীর যেকোনো মানুষের চাইতে সুপারম্যান অনেক বেশি স্মার্ট।

২. সুপারম্যান এন্টার্কটিকার বরফের মধ্যে একটি হাইপার এডভান্সড দুর্গ তৈরি করেছে এবং নিজস্ব জ্ঞান ব্যবহার করে সে দুর্গটি ক্রিপটনিয়ান প্রযুক্তি দ্বারা সাজিয়েছে। ফোর্টেস অফ সলটিচিউড নামের এই দুর্গ তৈরি করতে সুপারম্যানের অতিমানবীয় শক্তি, গতি আর শারীরিক দক্ষতার প্রয়োজন হয়েছে। যদিও ব্যাটম্যানের ব্যাটকেভও অনেক উন্নত প্রযুক্তিসম্পন্ন কিন্তু সুপারম্যানের ফোর্টেস অফ সলটিচিউডের কাছে এটি কিছুই নয়।

৩. সুপারম্যান কোন মানুষ নয়, সে একজন ক্রিপটনিয়ান। অর্থাৎ সুপারম্যান হচ্ছে মানুষের থেকে বহু উন্নত ভিনগ্রহের বাসিন্দা। সুপারম্যানের কাছে মানবপ্রজাতি হচ্ছে এখনো অনেক পিছিয়ে থাকা একটি জাতি যদিও সে বাধ্য হয়েছে এই গ্রহে আশ্রয় গ্রহণ করতে। তাই ব্যাটম্যানের মত মানবজাতির একজন এডভান্সড সদস্যও সুপারম্যান থেকে অনেক পিছিয়ে আছে।

৪. যে কোনো ধরণের মারামারি বা সংঘর্ষের সময় সুপারম্যান তার অতিমানবীয় শক্তি ব্যবহার করে। তার অমানুষিক শারীরিক শক্তি আর গতি, লেজারের চোখ এবং উড়বার শক্তির কারণে সুপারম্যান যে কোনো মানুষের চাইতে অনেক বেশি স্মার্ট।

সুতরাং এসব যুক্তিতর্কের পর সমালোচকরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সুপারম্যান ব্যাটম্যানের চাইতে অনেক বেশি স্মার্ট।