আয়েশি কেদারা

চেয়ার বা সোফায় সারাক্ষণ সোজা হয়ে বসে থেকে বিরক্তি ধরে গেছে ? এমন পরিস্থিতি এড়ানোর জন্য যদি চেয়ার বা সোফায় আপনি নিজের ইচ্ছা মতো আধা শোয়া ভঙ্গিতে রিলাক্স করতে পারেন তাহলে কেমন হবে বলুন তো ? আজ আমরা এমন এক চেয়ার বা সোফার কথা জানবো যা হয়তোবা আপনার ব্যস্ত দিনের মাঝে কিছুটা স্বস্তি এনে দিতে পারে !   

রিক্লাইনার এমন এক ধরণের চেয়ার বা সোফা যা ব্যবহারকারী চাইলেই নিজের ইচ্ছামতো উঁচু-নিচু করে নিতে পারে। অর্থাৎ এই চেয়ার বা সোফাগুলোতে এমন ব্যবস্থা করা থাকে যাতে এর মাথার দিক নিচু করে আমরা হেলান দিয়ে শুয়ে বিশ্রাম নিতে পারি। ব্যবহারকারী চাইলে রিক্লাইনারের মাথার দিক নামিয়ে একে বিছানার মতো বানিয়ে ঘুমও দিতে পারে !

একটি রিক্লাইনারে একটি ব্যাকরেস্ট থাকে যেখানে ব্যবহারকারী হেলান দিতে পারেন। এই ব্যাকরেস্টটি নিজের পছন্দমতো উঁচু-নিচু করা যায়। সাধারণত রিক্লাইনারের নিচের দিকে একটি ফুটরেস্ট থাকে যেখানে ব্যবহারকারী আরাম করে পা রাখতে পারবেন। লিভারের সাহায্যে এই ফুটরেস্ট নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

এছাড়া, আধুনিক রিক্লাইনারে Adjustable Headrest থাকে যেখানে মাথা রেখে ঘাড়ের বিশ্রাম করা যায়। আরও থাকে Lumbar Support যা কোমরকে রিলাক্স হতে সাহায্য করে। এমনকি কিছু রিক্লাইনারে তাপ ও ম্যাসাজের ব্যবস্থাও থাকে যার ফলে বসেই বিশ্রামের পূর্ণ আনন্দ পাওয়া যায়।

মানুষকে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে স্বাচ্ছন্দ্য দেওয়ার জন্য রিক্লাইনার ব্যবহৃত হয়। মানুষের গৃহস্থলির আসবাব হিসাবে এর ব্যবহার বেশ জনপ্রিয়। ঘরের মধ্যে আয়েশ করে আধ শোয়া হয়ে বিশ্রাম নিতে বা বই পড়তে বা গান শুনতে কে না ভালবাসে? তবে ঘরের বাইরেও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজে এটি ব্যবহৃত হয়। বিমান বা দূরপাল্লার ট্রেনে যাত্রীদের আরামদায়ক যাত্রা নিশ্চিত করতে রিক্লাইনার চেয়ার ব্যবহৃত হয়। অনেকের Arthritis ও Back Pain এর মতো সমস্যা আছে এবং তাঁরা যেন সহজে বসতে পারে তার জন্য রিক্লাইনার ব্যবহার করা হয়। ঘণ্টার পর ঘণ্টা চেয়ারে বসে কাজ করতে হয় – এমন পেশার মানুষদের জন্য রিক্লাইনার বেশ গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। এছাড়া, হাসপাতালের রোগীদের জন্যও রিক্লাইনার হুইলচেয়ার রয়েছে।